হোয়াইট হাউসে ২১০ বছরে ১৯ বিয়ে


সাহেব-বাজার ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হোয়াইট হাউসে ২১০ বছরে ১৯টি বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। স্থানীয় সময় গত শনিবার (১৯ নভেম্বর) সর্বশেষ বিয়ে হয় প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নাতনি নাওমি-পিটারের। এ বিয়েতেও জমকালো আয়োজনে সেজেছিল হোয়াইট হাউস।

১৮১২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ১৮টি বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয় আমেরিকান প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবনে। নাওমি-পিটারের বিয়ে সেই তালিকায় ১৯তম সংযোজন। তবে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্টের নাতনির বিয়ের সাক্ষী হলো এই ভবন। বরের নাম পিটার নিয়াল। নিজের ৮০তম জন্মদিন উদযাপনের চেয়েও এদিন হোয়াইট হাউজকে বিয়ের সাজে সাজানো নিয়ে বেশি ব্যস্ত ছিলেন বাইডেন ও তার প্রশাসন।

প্রেসিডেন্ট-পুত্র হান্টার বাইডেন এবং তার প্রথম স্ত্রী ক্যাথলিন বুলের কন্যা নাওমি, বয়স ২৮ বছর। নাওমি একজন আইনজীবী। তার স্বামী পিটারও আইন পেশায় রয়েছেন। পিটারের বয়স ২৫ বছর। গত চার বছর ধরে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব ছিল। এখন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন।

গত জুলাই মাসে করা এক টুইটে নাওমি প্রথম জানিয়েছিলেন যে হোয়াইট হাউস চত্বরেই বিয়ে করতে চলেছেন তারা।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম ও একমাত্র প্রেসিডেন্ট হিসাবে হোয়াইট হাউজেই বিয়ে সেরেছিলেন গ্রোভার ক্লিভল্যান্ড। ১৮৮৫ থেকে ১৮৮৯ এবং ১৮৯৩ থেকে ১৮৯৭ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

৪৭ বছর বয়সে প্রেসিডেন্ট হিসাবে হোয়াইট হাউজে প্রবেশের সময় গ্রোভার ক্লিভল্যান্ড অবিবাহিত ছিলেন। এর দুই বছর পর তিনি ফ্রান্সিস ফলসমকে বিয়ে করেন। তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয় হোয়াইট হাউজের ব্লু রুমে। সেসময় ফ্রান্সিসের বয়স ছিল মাত্র ২১ বছর।

এসবি/এআইআর