সীমান্তে বিএসএফের নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু


নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) বাংলাদেশী এক যুবককে তুলে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিএসএফের নির্যাতনে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে তার পরিবার অভিযোগ করেছে। এরপর আর তার মরদেহ ফেরত দেয়নি বিএসএফ।

স্থানীয়ররা জানান, গত সোমবার দুপুর ২টার দিকে গোদাগাড়ী উপজেলার দিয়াড় মানিকচক কামারপাড়া গ্রামের বাবলু রহমানের ছেলে আব্দুর রহিম মাসুদসহ (১৮) চারজন কৃষি জমিতে কাজ করছিল। এক পর্যায়ে কাঁটাতারের বেড়া সংলগ্ন বাংলাদেশী স্থান থেকে চারজনকে ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ। এরপর তিনজন পালিয়ে আসলেও আব্দুর রহিম মাসুদকে বিএসএফের হারুপুর ক্যাম্পে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন করে।

বিএসএফের নির্যাতনে আব্দুর রহিম মাসুদ মারা যায় বলে খবর পাই তার বাবা বাবলু রহমান। তিনি বলেন, গত বুধবার পর্যন্ত হারুপুর বিএসএফ ক্যাম্পে মাসুদের লাশ পড়েছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার থেকে মাসুদের লাশের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। বিএসএফ আমার ছেলে মেরে লাশ গুম করেছে।

চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আসরাফুল ইসলাম বলেন, ভারতের মুর্শিদাবাদের রানীতলা থানায় মাসুদের মরদেহটি আছে। সেখান থেকে নিয়ে আসার চেষ্টা চলছে।

এসবি/এমই/এআইআর