সরকারি গুদামে দ্বিগুণ খাদ্যশস্য মজুত


সাহেব-বাজার ডেস্ক: খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার জানিয়েছেন, সরকারি গুদামে যে খাদ্যশস্য মজুত থাকার কথা, তার দ্বিগুণ পরিমাণ আছে। এছাড়া এলসির মাধ্যমে আরও খাদ্যশস্য আমদানি করা হচ্ছে।

শনিবার দুপুরে নওগাঁয় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির একটি অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী এসব কথা কলেন।

তিনি বলেন, প্রায় ১৮ লাখ টন চাল সরকারি গুদামে মজুত আছে। আগামী ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যেই যোগ হবে নতুন আমনের ফলন। সব মিলিয়ে দেশে খাদ্য সংকটের কোন আশঙ্কা নেই।

এ সময় তিনি খাদ্য নিয়ে অযথা কেউ যাতে গুজব ছড়াতে না পারেন সে দিকে ব্যবসায়ীসহ সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানিয়েছেন।

এদিকে আমন ধান কাটা ও মাড়াইয়ের মধ্যে আবারও বেড়েছে চালের দাম। মোটা চালের দাম কেজিতে ৪ থেকে ৫ টাকা এবং প্রতি মণে বেড়েছে এক থেকে দেড়শো টাকা। নতুন করে চালের দাম বাড়ায় আবারো বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ।

সপ্তাহের ব্যবধানে নওগাঁয় চিকন চালের দাম ৫০ কেজির বস্তায় বেড়েছে ১শ টাকা। আর কেজিতে ৪ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে মোটা চালের দাম। চালকল মালিকদের দাবি, মজুত কমার পাশাপাশি ধানের দাম বাড়ায়, বেড়েছে চালের দামও।

নড়াইলে এক সপ্তাহে চিকন চালের দাম বেড়েছে এক থেকে তিন টাকা। নতুন করে চালের দাম বাড়ায় বিপাকে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন আয়ের মানুষ। যদিও চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে তদারকি চলছে দাবি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের।

এসবি/জেআর