শিশুদের হামাগুড়ি প্রতিযোগিতা এবার অনলাইনে


সাহেব-বাজার ডেস্ক : ইউরোপের দেশ লিথুয়ানিয়ায় প্রতিবছর শিশুদের হামাগুড়ি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। সাধারণত প্রতি বছর বাস্কেটবল ম্যাচের বিরতিতে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। তবে এবার করোনার কারণে জারি লকডাউনের ফলে কিছুটা ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করেছে কর্তৃপক্ষ। অনলাইনে তার আয়োজন করতে হয়েছে কর্তৃপক্ষকে। সেই প্রতিযোগিতা ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে। খবর এনবিসি নিউজ’র।

এবার নয় মাস বয়সী অলিভিয়া হামাগুড়ি দিয়ে ১৩ সেকেন্ডে পাঁচ মিটার পথ পাড়ি দিয়ে দেশটির দ্রুততম শিশুর খেতাব জিতে নিয়েছে। খবর ডয়েচে ভেলে।

ছয় মাস থেকে এক বছর বয়সী মোট ১৩টি শিশু এবার নিজেদের বাসায় থেকে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছে। তবে মজার বিষয়ও ঘটেছে একটি। ঘুম পাওয়ায় ১৪তম শিশুটির প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া সম্ভব হয়নি।

অলিভিয়ার মা আনা জানালেন, ‘অলিভিয়াতো আর বুঝতে পারেনি যে, এটা একটা প্রতিযোগিতা। আমরা শুধু পাঁচ মিটার দূরত্বে আমাদের পোষা প্রাণীর খাবারের পাত্রটি রেখে দিয়েছিলাম, যা ওর (অলিভিয়া) সবচেয়ে প্রিয়। ওর খেলনার দরকার নেই।’

অন্য বাচ্চাদের ক্ষেত্রে প্রিয় খেলনা, মায়ের আদর কিংবা খোলা ডিশওয়াশারের লোভ দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। প্রত্যেক মা তার শিশুর পছন্দের বস্তুগুলো নির্দিষ্ট স্থানে রেখে তাদের গতিপথ নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে রেখেছে বড় ভূমিকা।

শিশুদের এই বার্ষিক প্রতিযোগিতার আয়োজক রাইতাস ভিলনিয়ুস বাস্কেটবল ক্লাবের মার্কেটিং প্রধান লরেতা স্টাকাউসকাইতে। তিনি বলেন, ‘আমরা প্রতিবছর বাস্কেটবল ম্যাচের বিরতিতে দর্শকদের বিনোদন দিতে এর আয়োজন করে থাকি। এবার করোনা কারণে ম্যাচ বাতিল করতে হয়েছে। তবে ক্ষুদে সমর্থকদের হতাশ না করতে অনলাইনে তার আয়োজন করেছি আমরা।’