মেয়ের জন্য বাবার মাথায় মুকুট

  • 20
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ পয়লা ফাল্গুন। একই দিন বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। বসন্ত উৎসব আর ভালোবাসা দিবস উদযাপন হচ্ছে একসঙ্গেই। গত বছরেও ভালোবাসা দিবসের দিনেই পালিত হয়েছিল পয়লা ফাল্গুন।

দিনটিতে তরুণীরা সেজেছেন রঙিন সাজে। পরনে তুলেছেন বাসন্তি শাড়ি, মাথায় ফুলের মুকুট।

এই মুকুট নিয়ে মেয়ের প্রতি ভালোবাসার এক নজির দেখালেন রাজশাহীর এক বৃদ্ধ। নাম তার মো. মোস্তফা। তিনি পঙ্গু। বসে বসে তাকে পথ চলতে হয় দুই হাতের ভরে। মেয়ের আবদারে শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে বাজার থেকে নিয়েছিলেন একটি ফুলের মুকুট। কিন্তু দুই হাতে ভর দিয়ে চলতে হয় বলে মেয়ের এই মুকুটই রেখেছিলেন নিজের মাথায়। তারপর ব্যস্ত রাস্তার একপাশ ধরে চলছিলেন।

রাতে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার এলাকায় মোস্তফা যখন মাথায় ফুলের মুকুট পরে যাচ্ছিলেন তখন পথচারীরা তার দিকে তাকিয়ে থাকছিলেন। তবে নিজের মতো করেই চলছিলেন মোস্তফা। কথা বলে জানা গেল, তার বাড়ি নগরীর জয়পুর কুখণ্ডি এলাকায়। প্রতিবন্ধী বলে কোন কাজ করতে পারেন না। সংসার চালাতে বাজারে এসে মানুষের কাছে হাত পাততে হয়।

মাথায় ফুলের মুকুটের বিষয়ে জানতে চাইলে একটু লজ্জা পেয়ে হাসলেন প্রায় ৬০ বছর বয়সী মোস্তফা। তারপর জানালেন, পয়লা ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবসে তার মেয়ে বান্ধবীদের সঙ্গে শাড়ি পরে ঘুরে বেড়ানোর পরিকল্পনা করেছে। এ জন্য তাকে বাজার থেকে একটি ফুলের মুকুটও আনতে বলেছে। ফুলের দোকানে গিয়ে তিনি সেটি কিনতে চেয়েছিলেন। ফুলের দোকানি অবশ্য টাকা নেননি। বিনাপয়সায় দিয়েছেন মুকুটটি। কিন্তু সেটি নিয়ে তার পথচলার উপায় নেই। দুই হাতের ওপর ভর দিয়েই যে চলতে হয় তাকে। তাই তো মেয়ের মুকুট মাথায় নিয়েই তিনি চলছেন।

 

এসবি/আরআর/এমই


  • 20
    Shares