মৃণাল সেন লুকে চমক দিলেন চঞ্চল


সাহেব-বাজার ডেস্ক: ভারতের কিংবদন্তি বাঙালি চলচ্চিত্রকার মৃণাল সেনের জীবন ও কর্ম অবলম্বনে সিনেমা নির্মাণ করছেন কলকাতার জনপ্রিয় নির্মাতা সৃজিত মুখার্জী। সিনেমার নাম রাখা হয়েছে ‘পদাতিক’। এতে মৃণাল সেনের ভূমিকায় কাজ করছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী।

এরই মধ্যে সিনেমাটির ফার্স্ট লুক প্রকাশ্যে এসেছে। এবার মৃণাল সেন রূপে প্রকাশ্যে এলেন চঞ্চল চৌধুরী। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এই লুক প্রকাশ করেছেন। মৃণাল সেন রূপে চঞ্চলকে দেখে হতবাক সিনেমাপ্রেমীরা। শুধু চঞ্চল নয় মৃণাল সেনের স্ত্রী গীতা সেন রূপে দেখা মিলেছে মনামী ঘোষের। তা ছাড়া যুবক মৃণাল সেনের লুকও সামনে এসেছে। এ লুকে ধরা দিয়েছে কলকাতার অভিনেতা কোরক সামন্ত।

এর আগে চঞ্চল চৌধুরীকে মৃণাল সেনের চরিত্রে নির্বাচন করার কারণ ব্যাখ্যা করে সৃজিত মুখার্জি ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে বলেন— ‘প্রথমত দু’জনের মুখের মিল আছে, সেটা কাকতালীয়। কিন্তু মৃণালবাবুর মতোই চঞ্চলের চোখের দৃষ্টি অত্যন্ত ধারালো এবং সজাগ। তা ছাড়াও মৃণালবাবুর রাজনীতি চেতনা, তার যাপন এবং দৃষ্টিভঙ্গির সঙ্গেও চঞ্চলের প্রচুর মিল। এটাও কাকতালীয় হতে পারে। কিন্তু মিলটা রয়েছে।’

এ সিনেমায় মৃণাল সেনের ব্যক্তিগত এবং পরিচালনার জীবন বেশি থাকবে। ১৯৬৯ থেকে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত মৃণাল সেনের নির্মিত কলকাতা ট্রিলজি সিনেমার অনেকটা জুড়ে থাকবে।

সৃজিত মুখার্জি মৃণাল সেনের জীবনী নিয়ে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করতে চেয়েছিলেন। লকডাউনের সময়ে চিত্রনাট্যও রচনা করে ফেলেছিলেন তিনি। পরে সিনেমা বানানোর সিদ্ধান্ত নেন। স্বভাবতই সিরিজের তুলনায় দৈর্ঘ্য কমাতে হয়েছে। সৃজিতকে সাহায্য করেছেন মৃণাল সেনের পুত্র কুণাল সেন। যাকে মৃণাল ‘বন্ধু’ বলে সম্বোধন করতেন। কুণাল সৃজিতকে সিনেমাটি নির্মাণের অনুমতি দিয়েছেন। চলতি মাসে বায়োপিকটির শুটিং শুরুর পরিকল্পনা করেছেন পরিচালক।

এসবি/এআইআর