মাদ্রাসায় পড়ে মেডিকেল কলেজে চান্স পেল খাইরুম


মিজান মাহী, দুর্গাপুর: ছোট থেকেই অত্যান্ত মেধাবী দুর্গাপুর পৌর এলাকা রৈপাড়ার উম্মে খাইরুম। তাঁর পিতা একজন বাঁশ ব্যবসায়ী। মাদ্রাসা হতেও ভাল কিছু করা যায় এমন প্রত্যাশা থেকেই খাইরুমকে তাঁর বড়ভাই রুয়েট শিক্ষার্থী আবু হানিফের ইচ্ছেতেই দুর্গাপুর ফাযিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসা ভর্তি করেন। সেখান থেকেই বিজ্ঞান বিভাগ হতে দাখিল ও আলিম পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ অর্জন করে তিনি।

এতে করে বাবা-মা ভাইসহ পরিবারের স্বপ্ন পূরণের ব্যাপক পড়াশোনা চালিয়ে যেতে থাকে খাইরুম। এবার ডাক্তারি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে। শেষ পর্যন্ত সেখানেও সফলতার শীর্ষে পৌছায় এই মেধাবী খাইরুম। এবার ২০২১-২২ সেশনের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় মেধাবী উম্মে খাইরুম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ ফরিদপুরে চান্স পেয়েছে। এতে করে পরিবার-শিক্ষক তাঁরসহপাঠীরা সহ এলাকায় তার সুনাম বইছে।

খাইরুমের বড়ভাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আবু হানিফ বলেন, আমি একজন মাদ্রারার ছাত্র। মাদ্রাসা থেকে পড়েই আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পড়াশোনা করছি। তাই ছোটবোনকেও মাদ্রাসায় ভর্তি করে দিয়ে ছিলাম। দাখিল আলিম এ ভাল রেজাল্টের পাশাপাশি ডাক্তারী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে সবার মুখ উজ্জল করছে সে।

উম্মে খাইরুম তার প্রতিক্রিয়ায় জানায়, আমি দাখিল ও আলিম পরীক্ষা ভাল রেজাল্ট করার পর পরিবার ও মাদ্রাসার শিক্ষকরা আমাকে ডাক্তার হতে হবে ব্যাপক উৎসাহ প্রদান করে। এতে আমিও শিক্ষকদের পরামর্শে আমি ব্যাপক পড়াশোনা ও পরিশ্রম করেছি। সৃষ্টিকর্তা আমার স্বপ্ন পূরুণ করেছেন।

দুর্গাপুর ফাযিল (ডিগ্রী) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও. আলতাফ হোসেন বলেন, উম্মে খাইরুম খুব মেধাবী। যা পড়তেন সেগুলো বুঝার চেষ্টা করতেন। নিয়মমাফিক পড়াশোনা করতেন। তার বড়ভাই আবু হানিফও এ মাদ্রাসা থেকে পাস রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াশোনা করছেন। । উম্মে খাইরুমের জন্য দোয়া রইল। তার ভবিষ্যৎ জীবনের সফলতা কামনা করি বলে জানান।

এসবি/এমএম/জেআর