‘মাদক থেকে দূরে রাখতে সন্তানকে বন্ধু করে নেন’


নিজস্ব প্রতিবেদক: মাদক থেকে সন্তানকে দূরে রাখতে তাকে বেশি করে সময় দেওয়া জন্য অভিভাবকদের পরামর্শ দিয়েছেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘সন্তানকে বন্ধুর মত করে ফেলেন। তাহলে তারা মাদকের কাছে যাবে না। একবার আপনার সন্তানকে নেশা পেয়ে বসলে সারাজীবন শেষ। কোথাও মুখ দেখাতে পারবেন না। এটা থেকে বের হবার সহজ উপায় আপনার ছেলে-মেয়েকে সময় দিন। নয়তো আপনাকে পস্তাতে হবে।’

মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উদযাপন উপলক্ষে রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজশাহীর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। নগরীর একটি চাইনিজ রেস্তোরাঁর সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালীও অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরউল্লাহ আরও বলেন, ‘নিঃসন্তান একটি দম্পতির হাহাকার দেখেন। তারা মনে করে একটি সন্তান যদি পেতাম তাহলে তাকে মনের মত মানুষ করতাম। আল্লাহ আপনাকে সন্তান দিয়েছে। আপনি সন্তানকে মানুষের মত মানুষ করতে পারবেন। কিন্তু আপনি সন্তানকে সময় দিলেন না। স্নেহ থেকে বঞ্চিত হয়ে সে মাদক নেওয়া শুরু করলো। এরপর আপনি তাকে যতই স্নেহ দেন না কেন, তাকে মাদক থেকে আর ফেরাতে পারবেন না। তাই সতর্ক থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘নতুররা তো ভুল করবেই। এখন ডিজিটাল যুগ। এই মোবাইলে কত ভালো ভালো জিনিস আছে সেদিকে না গিয়ে বাজে বাজে জিনিসের দিকে যাবে। নিষিদ্ধ জিনিসের প্রতি নতুনদের দূর্বল আগ্রহ। তাই এ বিষয়ে অভিভাবকদেরই সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।’

জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য দেন- রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) এবিএম মাসুদ হোসেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক ফজলুর রহমান, জেলার সিভিল সার্জন ডা. আবু সাইদ মোহাম্মদ ফারুক প্রমুখ।

এসবি/এসএসকে/জেআর