বাঁধাকপিতে কৃমির বাসা!

  • 1
    Share

সাহেব-বাজার ডেস্ক : শীতকালে জনপ্রিয় সবজি বাঁধাকপি। কৃষির আধুনিকায়নের ফলে এখন সারা বছরই মেলে এই সবজি। আমাদের দেশে সবুজ রঙে পাওয়া যায় বাঁধাকপি। কিন্তু অন্যান্য দেশে সাদা, গাঢ় সবুজ, হালকা সবুজ, বেগুনি রঙেও পাওয়া যায়। বাঁধাকপি পুষ্টিগুণে ভরপুর।

বাঁধাকপি একটি পাতা জাতীয় সবজি। বাঁধাকপি কাঁচা কিংবা রান্না করে খাওয়া হয়। স্যালাদ হিসেবে শসা, গাজর, টমেটোর সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়া যায়। অনেকের প্রিয় এই সবজিতে নাকি কৃমির বাসা রয়েছে! এতে ফিতাকৃমি বাস করে বলে অনেকেই মনে করেন। এই ফিতাকৃমি শরীরে অন্য অংশের মাধ্যমে পৌঁছতে পারে সরাসরি মস্তিষ্কে ৷

এই ফিতাকৃমির মাধ্যমে যে সংক্রমণ হয় তাকে টেনাইসিস বলা হয়ে থাকে ৷ শরীরে প্রবেশ করার পর ডিম পাড়ে, ফলে শরীরের মধ্যে ক্ষতের পরিমাণ বাড়তে থাকে ৷ এই কৃমি তিন প্রজাতির টিনিয়া সোগিনাটা, টিনিয়া সেলিওম, টিনিয়া এশিয়াটিকা, এই ক্ষতিকারক জীবাণু যকৃতে পৌঁছে ক্ষতিকারক মাংসপিণ্ড বা সিস্টের জন্ম দেয় ৷ চোখেরও ক্ষতি করে ৷

ভারতের বাঙালি পুষ্টিবিদ ও ডায়েটিশিয়ান অনু সিনহা বলেছেন, বাঁধাকপিতে উপস্থিত টেপওয়ার্ম একজন ব্যক্তির মস্তিষ্কের ক্ষতি করতে পারে। তাই এটি কাঁচা না খাওয়ার পরামর্শ তার।

তিনি বলেন, কৃমির তাই সংক্রমণ রোধ করতে রান্না করার আগে বাঁধাকপি ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। সালাদ হিসেবে কাঁচা না খাওয়াই ভালো। প্রয়োজনে সিদ্ধ করে নেয়া যেতে পারে। এর ফলে ভেতরের জীবাণু বের হয়ে আসে। এভাবে খেলে আপনার স্বাস্থ্যের তেমন ক্ষতি হবে না।

এসবি/এআইআর


  • 1
    Share