পানির নিচে নতুন শহর


সাহেব-বাজার ডেস্ক : প্রাচীন এক শহরের আদলে সাজানো হয়েছে সুইমিংপুলের তলদেশ। সেখানে মন চাইলে খেলতে পারবেন বিলিয়ার্ড, ভিডিও গেমসহ নানা খেলাধুলা। চালানো যাবে সাইকেল। এমনকি পুলের নিচে রয়েছে সিনেমা শুটিংয়ের স্টুডিও। এডিটিংয়ের জন্য পাশেই রয়েছে এডিটিং রুম। আছে আলোকচ্ছটা আর সুরের খেলা।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে চালু হচ্ছে গভীরতম সুইমিংপুল। আর এই পুলের নিচেই আছে একটি নতুন শহর। মূলত পানির নিচের আজব এ জগৎই পুলটির আকর্ষণের কেন্দ্র। সাঁতার কাটার সময় আরাম-আয়েশে যেন কমতি না পড়ে, সে জন্য খেয়াল রাখা হয়েছে পানির তাপমাত্রার দিকেও। পুলে পানির তাপমাত্রা থাকবে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। নিরাপত্তার বিষয়েও কোনো ঘাটতি রাখেনি পুল কর্তৃপক্ষ। সেখানে নজরদারিতে থাকবে ৫৬টি ক্যামেরা। জরুরি অবস্থা মোকাবিলায় থাকছে ১২ জনের স্থান সংকুলান এমন একটি চেম্বার।

পুলটি রয়েছে ঝিনুক আকৃতির ১ হাজার ৫০০ বর্গমিটারের বিশাল এক কমপ্লেক্স ভবনের ভেতরে। এই কমপ্লেক্সে রয়েছে একটি রেস্তোরাঁ। সুইমিংপুলটির গভীরতা ১৯৬ ফুট। এটিতে পানির ধারণক্ষমতা ১ কোটি ৪০ লাখ লিটার। আর আকৃতিতে এটি অলিম্পিকের ছয়টি পুলের সমান। গত ২৭ জুন পুলটি গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের খাতায় নাম লিখিয়েছে।

সুইমিংপুলটি প্রথম যারা ঘুরে দেখেছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন দুবাইয়ের যুবরাজ শেখ হামদান বিন মুহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন তিনি। তবে সেখানে এখন শুধু আমন্ত্রিত অতিথিরাই ভ্রমণ করতে পারবেন। সবার জন্য পুলটি খুলে দেওয়া হবে চলতি বছরের শেষের দিকে।

 

এসবি/এমই