নামের প্রথম অক্ষরই বলে দেবে আপনি কেমন!

  • 10
    Shares

সাহেব-বাজার ডেস্ক : কথায় আছে, নাম দিয়ে যায় চেনা। প্রত্যেকের নামেরই একটা বিশেষত্ব আছে, যা থেকে সেই ব্যক্তির চরিত্র সম্পর্কে একটা ধারণা করা যায়। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, নামের প্রথম অক্ষর অনেক অর্থ বহন করে। এই প্রথম অক্ষর দিয়ে সেই ব্যক্তি সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারা যায়। শুধু তাই নয়, নামের প্রথম অক্ষর দিয়ে নিজের ভাগ্যও যাচাই করা যায়-এমনটাই মত জ্যোতিষশাস্ত্রের। এ ক্ষেত্রে বোঝা যাচ্ছে, নামের প্রথম অক্ষরের যথেষ্ট গুরুত্ব আছে।

ভারতের লাইফস্টাইল বিষয়ক সংবাদমাধ্যম বোল্ডস্কাই অবলম্বনে এবার দেখে নিন নামের প্রথম অক্ষর আপনার সম্পর্কে কী বলছে…

‘এ’ হচ্ছে সবচেয়ে শক্তিশালী অক্ষর। যাদের নাম এ দিয়ে শুরু হয় তারা সংকল্পবদ্ধ, উদ্যোগী এবং সাহসী হন। এই ব্যক্তিরা নিজের দক্ষতা সম্পর্কে অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী এবং অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় হন। এরা নিজের শর্তে চলা পছন্দ করেন।

বি

যাদের নামের প্রথম অক্ষর ‘বি’ দিয়ে শুরু হয় তারা নিজেদের আবেগ এবং অনুভূতিকে লুকিয়ে রাখতে পারেন। কিছুটা লোভীও হন এই মানুষরা!

সি

‘সি’ দিয়ে যাদের নাম শুরু হয় তারা প্রতিভাবান, স্বভাবের দিক থেকে খুব সামাজিক হন। তবে যদি কেউ এদের আঘাত করে তাহলে কিন্তু প্রতি হিংসাপরায়ণ হয়ে ওঠেন এরা। এরা আবেগপ্রবণ হন।

ডি

কর্মঠ, নিরাপদ এবং ব্যালান্স করে চলতে পারেন ‘ডি’ অক্ষরের মানুষরা। এরা পরিচ্ছন্ন হন এবং সব জিনিস ঠিক জায়গায় রাখা পছন্দ করেন। এদের খারাপ দিক হলো এরা খুব জেদি হয়।

এরা চরিত্রের দিক থেকে খুব ভালো হয়। বড় বড় সমস্যা সহজেই সমাধান করতে পারেন এরা। এরা যেখানেই যান সহজে বন্ধু তৈরি করে ফেলেন। তবে ভালোবাসার সম্পর্কে ‘ই’ অক্ষরের মানুষদের বিশ্বাস করা যায় না।

এফ

এরা খুব যত্নশীল, দায়িত্ববান, পরিবারমুখী হয়। খুব রোম্যান্টিক এবং সম্পর্কের প্রতি দায়িত্বশীল স্বভাবের হয় ‘এফ’ অক্ষরের মানুষরা।

জি

স্বভাবের দিক থেকে সহজাত হন ‘জি’ অক্ষরের মানুষরা। এরা মানুষের থেকে পরামর্শ নেওয়া একদম পছন্দ করেন না। মূলত নিজের জীবন নিজের মতো করে চালানো পছন্দ করেন। খুব বুদ্ধিমান হন এরা।

এইচ

উচ্চাকাঙ্ক্ষী, টাকা জমাতে পারেন এরা। জীবনে খুব প্র্যাক্টিকাল হন এরা। ব্যবসায়িক দক্ষতা, ভালো নেতা হন ‘এইচ’ অক্ষরের লোকজন। ধীর স্থির স্বভাবের জন্য এরা নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছতে পারেন। সম্পর্কের ক্ষেত্রে এরা খুব পজেসিভ হন।

আই

এরা খুব দয়ালু হন। নির্ভরযোগ্য এবং চিন্তাভাবনা খুব গভীর হয় ‘আই’ অক্ষরের মানুষদের। কাউকে সাহায্য করতে এরা একবারও ভাবেন না। তবে এরা একটুতেই আঘাত পেয়ে যান কোনো ব্যাপারে।

জে

‘জে’ অক্ষরের ব্যক্তিরা খুব উচ্চাকাঙ্ক্ষী হন। এরা যা চান তা পেতে সবকিছু করতে পারেন। এরা স্বাবলম্বী হন।

কে

লাজুক, কথা লুকিয়ে রাখা পছন্দ করে এরা। জীবনে ব্যালান্স করে চলতে চায় এবং শান্তিপ্রিয় হন।

এল

জীবনকে অন্যভাবে দেখতে পছন্দ করেন এরা। এই ব্যক্তিদের জীবনে তার ভালোবাসার মানুষ সবকিছু হয়। সেন্স অফ হিউমারও খুব ভালো হয় এদের।

এম

‘এম’ অক্ষর দিয়ে যাদের নাম শুরু, তারা খুব কর্মঠ হন। সম্পর্কের প্রতি অনুগত, নিজের শর্তে জীবনযাপন করতে চান। ধৈর্য্যের বাইরে চলে গেলে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন এরা।

এন

এরা নিজেদের রাস্তা নিজেরা তৈরি করে নেন। এককথায় পারফেকশনিস্ট হন ‘এন’ অক্ষরের মানুষরা।

দারুণ প্রেমিক হন এরা। পৃথিবীর সবথেকে বিশ্বাসযোগ্য মানুষ। ‘ও’ অক্ষরের মানুষরা ভালো শিক্ষক বা গবেষক হতে পারেন।

পি

সাফল্যের শীর্ষে থাকতে পছন্দ করেন এরা। স্বভাবের দিক থেকে খুব জেদি হন, তবে মানুষকে খুশি করতে এদের তুলনা হয় না। এদের খারাপ দিক হলো, এরা স্বার্থপর ও অস্থির স্বভাবের হন।

কিউ

কিউ নামের মানুষরা নিজেদের আশপাশে রহস্য তৈরি করে রাখেন। অনুগত এবং সৎ স্বভাবের হন এরা। ভালো বন্ধু এবং উপদেষ্টা হন ‘কিউ’ অক্ষরের লোকজন।

আর

‘আর’ অক্ষরের মানুষরা ভালোবাসার মানুষের জন্য সবকিছু করতে পারেন। শান্তি ভালোবাসেন এরা।

এস

স্বভাবের দিক থেকে এরা খুব রোমান্টিক হন। নেতৃত্বের দক্ষতার কারণে এরা সবসময় আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন।

টি

ডিপ্লোম্যাটিক হন ‘টি’ অক্ষরের মানুষরা। ভাগ্যের চেয়ে কঠোর পরিশ্রমকে বেশি গুরুত্ব দেন এরা।

ইউ

লাক্সারি লাইফ পছন্দ করেন এরা। সেজন্য কঠোর পরিশ্রমও করেন। এরা শৃঙ্খলাপরায়ণ এবং সর্বদা নতুন আইডিয়া নিয়ে কাজ করেন। উন্নতির জন্য ‘ইউ’ অক্ষরের মানুষরা কখনো কখনো প্রিয়জনকেও উপেক্ষা করেন।

ভি

ভালোবাসতে জানেন এরা, অনুগতও হন। এদের স্মৃতিশক্তি প্রখর হয়। কাজের প্রতি দায়িত্বশীল, পরিশ্রমী হন ‘ভি’ অক্ষরের মানুষরা।

ডব্লিউ

খুব আবেগপ্রবণ হন এই অক্ষরের মানুষরা। রুটিনমাফিক কাজ এদের একদম পছন্দ নয়। তাই মাঝেমধ্যে অস্থির হয়ে ওঠেন এরা।

এক্স

অঙ্গীকারবদ্ধ হওয়া পছন্দ করেন না এরা। লোভী এবং জীবনে শৃঙ্খলার অভাব থাকে ‘এক্স’ অক্ষরের মানুষদের।

ওয়াই

স্বাধীনতা পছন্দ করেন এরা, তার জন্য সবকিছু করতে পারেন। এরা সহজে কারুর সঙ্গে মিশতে পারে না, নিজেদের মতো করে থাকা পছন্দ করেন।

জেড

এদের স্ট্যামিনা এবং ইচ্ছাশক্তি প্রবল হয়। বস বা ম্যানেজার হিসেবে সফল হন এরা। স্বভাবের দিক থেকে আশাবাদী এবং কূটনীতিক হন ‘জেড’ অক্ষরের মানুষরা। এরা জানেন কার কাছ থেকে কীভাবে কাজ আদায় করে নিতে হয়।


  • 10
    Shares