নামছে শীত, ডিসেম্বরে শৈত্য প্রবাহ


সাহেব-বাজার ডেস্ক: মধ্য কার্তিকে দিনে গরমের তেজের বিপরীতে রাতে তাপমাত্রা কমলেও শীত নামতে আরও কিছুটা সময় লাগবে বলে আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছেন।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুস বলেছেন, মধ্য নভেম্বরের পর শীত নামবে, আর ডিসেম্বরে আসবে শৈত্য প্রবাহ।

পঞ্জিকার হিসেবে এখন হেমন্ত ঋতু চলছে, এরপর অগ্রহায়ন পেরিয়ে ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে শীতকাল শুরু হলেও শীত অনুভূত হয় তার আগে থেকে।

উত্তরী হাওয়া এখনও না এলেও গত কয়েকদিন ধরে রাতের তাপমাত্রা কমছে, উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় ভোরের কুয়াশা শীতের জানান দিচ্ছে।

শীত কি এবার তাহলে আগে আসছে কি না- প্রশ্ন করলে আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, “দিনে এখন তাপমাত্রা বাড়তির দিকে, রাতে একটু কমছে। বিভিন্ন অঞ্চলে রাতে হিমহিম ভাব হচ্ছে, কোথাও হালকা বৃষ্টি থাকলে ঠাণ্ডার অনুভূতিও বাড়ছে, তবে এটা শীত নয়। শীত আসবে যথাসময়ে।”

ভোরের শিশিরে শীতের আগমন বার্তা

দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশ থেকে বিদায় নিয়েছে। উত্তর-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশে এলে শীত শুরু হয়েছে বলে ধরে নেওয়া হয়।

কার্তিকেও হালকা বৃষ্টির আভাস রয়েছে, তাতে ঠাণ্ডার অনুভূতি ছড়ালেও সেই আবহাওয়াকে শীত বলতে নারাজ আবহাওয়াবিদরা। তারা বলছেন, পুরোপুরি শীত অনুভূত হবে নভেম্বর মাসের দ্বিতীয়ার্ধের দিক থেকে।

“নভেম্বর মাসে রাতের তাপমাত্রা কমতে থাকবে। মধ্য নভেম্বরে শীতালু আমেজ বাড়বে। ডিসেম্বরের দিকে শৈত্যপ্রবাহের প্রকোপ থাকতে পারে,” বলেন রুহুল কুদ্দুস।

এর মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপের খবরও দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

লঘুচাপটি শ্রীলঙ্কার অদূরে তামিলনাড়ু উপকূলে রয়েছে। এর একটি বর্ধিতাংশ্‌ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় আকাশ আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সারাদেশের দিনের ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে।

সোমবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে রংপুরের ডিমলায় ১৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস; এসময় ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে কক্সবাজারে ৩৪ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় ছিল ৩২ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াগত বৈশিষ্ট্য পর্যালোচনা করে নভেম্বরে বৃষ্টি, লঘুচাপ, তাপমাত্রার বিষয়ে দুয়েকদিনের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাস দেবে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

তবে তিন মাসের (অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর) দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- নভেম্বরে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। বঙ্গোপসাগরে ১-২ টি নিম্নচাপ হতে পারে; এর মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমবে।

ডিসেম্বর মাসের শেষার্ধে উত্তর, উত্তর পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে ১-২ টি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ (সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) ও মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ (৬-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) বয়ে যেতে পারে।

এসবি/জেআর