দুই তরমুজের দাম প্রায় ২১ লাখ টাকা!


সাহেব-বাজার ডেস্ক : জাপানে দুটি তরমুজ বিক্রি হয়েছে ২০ লাখ ৯৪ হাজার ৮০২ টাকায়। জাপানের উত্তরাঞ্চলের ইউবারি শহর উন্নতমানের তরমুজের জন্য প্রসিদ্ধ। প্রতি মৌসুমে ইউবারি তরমুজের জন্য মুখিয়ে থাকে জাপানিরা। মৌসুমের শুরুতেই তাই সাপ্পোরো পাইকারি বাজারে নিলামে বিক্রি হয় এই তরমুজ। তরমজু যত বড় ও যত গোল হয় দামও তত বেশি।

এবার একবারে গোল এক জোড়া ইউবারি তরমুজ বিক্রি হয়েছে ২৭ লাখ ইয়েন, অর্থাৎ ২৪ হাজার ৭০২ ডলার বা ২০ হাজার ২৬০ ইউরোতে। বাংলাদেশি টাকায় যার দাম ২০ লাখ ৯৪ হাজার ৮০২ টাকা! এত দাম দিয়ে তরমুজ দুটির ক্রেতার গল্প অন্যরকম। তরমুজ দুটি কিনেছে স্থানীয় শিশু খাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হোক্কাইডো প্রোডাক্টস লিমিটেড। তারা কিন্তু নিজেদের জন্য এত দাম দিয়ে এই তরমুজগুলো কেনেনি, কিনেছে ক্রেতাদের জন্যই।

হোক্কাইডো প্রোডাক্ট লিমিটেড জানে, এমন তরমুজের একটা টুকরো পেলেও ক্রেতারা নিজেকে ধন্য মনে করবেন, তরমুজ খাওয়ার খুশির অভিজ্ঞতার কথা মনে রেখে ভবিষ্যতে বারবার কিনবেন হোক্কাইডোর পণ্য। তাই প্রতিষ্ঠানটি ঘোষণা দিয়েছে যে, মূল্যবান তরমুজ দুটো সমান ১০ ভাগে ভাগ করে লটারির আয়োজন করবে। যে ১০ সৌভাগ্যবান বা সৌভাগ্যবতীর নাম উঠবে লটারিতে, তারাই হবেন এক টুকরো অমৃতসম তরমুজের মালিক।

গত মৌসুমেও এরকম চড়াদামে দুটি তরমুজ কিনেছিল হোক্কাইডো প্রোডাক্ট লিমিটেড। তবে সেবার প্রতিটি তরমুজের দাম পড়েছিল ৯০০ ইউরোর মতো। কিন্তু এবার তার চেয়ে বিশ গুণের বেশি দাম দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি দুটি তরমুজ কিনেছে। সূত্র: ডয়েচে ভেলে

এসবি/এআইআর