ট্রাম্পকে অভিশংসিত করতে হোয়াইট হাউজ প্রস্তুত

  • 2
    Shares

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতে মাত্র সাতদিন ক্ষমতা রয়েছে। তারপরেই ২০ জানুয়ারি ক্ষমতার চেয়ার থেকে উঠে যেতে হবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। এদিকে ক্ষমতার শেষ মুহূর্তে পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার জন্য সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী অধিবেশনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ইমপিচ করতে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা প্রস্তাব উত্থাপন করেন। এতে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদরা অধিকাংশ ভোট দিয়েছেন।

আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের হোয়াইট হাইজ এখন ডোনল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসিত করার জন্য প্রস্তুত।

এর আগে ভাইস-প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স হাউস ট্রাম্পকে অপসারণের প্রস্তাবের বিপক্ষে সমর্থন জানান। কিন্তু ডেমোক্র্যাট প্রতিনিধিরা ট্রাম্পকে সরানোর প্রস্তাবে ভোট দিয়েছেন।

বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টেক্সাসের মেক্সিকো সীমান্ত দেয়াল দেখে ফেরার সময় বলেন, সংশোধনী আবেদন করা আমার জন্য ঝুঁকিহীন তবে এতে করে জো বাইডেন এবং বাইডেন প্রশাসন ছিটকে পড়ে যাবে। আমাকে অভিশংসন করতে চাওয়া মানুষজনের মধ্যে খুবই ক্ষোভ বিরাজ করছে। কিন্তু আমি সহিংসতা চাই না।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল ভবনে মার্কিন সিনেট এবং প্রতিনিধি পরিষদের যৌথ অধিবেশন বসে। সেখানে সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয় নিশ্চিত করার জন্য ইলেক্টরাল ভোটের আনুষ্ঠানিক গণনা করা হয়। ঠিক সেই সময় ট্রাম্প সমর্থকরা মার্কিন কংগ্রেসে হামলা চালায়। এছাড়াও ট্রাম্প সমর্থকরা সেই সময় ক্যাপিটল ভবনে অনেক ভাংচুর এবং লুটপাট করে। আর এ ঘটনাকে সমর্থন জানিয়ে ট্রাম্প নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ও ফেসবুকে পোস্ট দেন। পোস্টে দাঙ্গাকারীদের ‘দেশপ্রেমিক’ বলে অভিহিত করেন তিনি।

ক্ষমতা হস্তান্তরের আর মাত্র বাকি নয় দিন। এই শেষ সময়ে তাকে সরিয়ে দিতে স্থানীয় সময় সোমবার সকালে প্রস্তাবটি প্রতিনিধি পরিষদে উত্থাপন করা হয়। প্রস্তাবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে উন্মত্ত জনতাকে ‘অভ্যুত্থানে প্ররোচনা’ দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। যদি শেষ পর্যন্ত তাকে ইমপিচমেন্ট করা হয় তাহলে ট্রাম্প হবেন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে দুই বার ইমপিচ হওয়া একমাত্র প্রেসিডেন্ট। সূত্র : রয়টার্স ও আলজাজিরা

এসবি/এআইআর


  • 2
    Shares