চলন্ত ট্রেনে ছিনতাই, স্টেশনে যাত্রীকে পেটালেন রেলকর্মীরা


নিজস্ব প্রতিবেদক: চলন্ত ট্রেনে ছিনতাইয়ের প্রতিবাদ করায় রাজশাহী রেলস্টেশনে যাত্রীকে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রী শিমুল ইসলামকে (৩৫) মারধর করা হয়। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহত শিমুলকে হেফাজতে নেয় রেলওয়ে পুলিশ।

জিআরপি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহাদৎ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের লবি থেকে ছিনতাইকারীরা কুমকুম নামে এক যাত্রীর ভ্যানিটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। রাজশাহীর সারদাহ রোড স্টেশনে ঘটনাটি ঘটে। ছিনতাইয়ের ঘটনার পরে যাত্রীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এরপর ওই ট্রেনের দায়িত্বে থাকা গার্ড মনির হোসেন এবং অ্যাটেনডেন্ট তরিকুল ইসলামের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন যাত্রীরা। এসময় এক ক্লিনারকে ধরে চর-থাপ্পড় মারার অভিযোগও পাওয়া যায়। এ ঘটনার পর ট্রেনটি রাজশাহী স্টেশনে থামলে পরিচ্ছন্নতাকর্মী লাল মিয়াসহ কয়েকজন মিলে শিমুল ইসলামকে মারধর করেন। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে আহত শিমুল অভিযোগ করে বলেন, ট্রেনে ছিনতাইকারী চক্রের সঙ্গে জড়িত ক্লিনার, গার্ড এবং অ্যাটেনডেন্টরা। তা না হলে এত লোক হুট করে প্রথম শ্রেণির বগিতে ওঠার কথা নয়। এর প্রতিবাদ করায় গার্ড মনিরসহ কয়েকজন ক্লিনার আমাকে ধরে পিটিয়েছে। আমি এর বিচার চাই।

এসআই শাহাদৎ হোসেন বলেন, এটা একটা ভুল বোঝাবোঝি। আমাদের কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। তবে দুই যাত্রীই লিখিত অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনের ম্যানেজার আবদুর করিম বলেন, রাজশাহীর সারদাহ রোড স্টেশনে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ট্রেনটি রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে আসলে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বাগবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। আমরা সিসিটিভি ফুটেজ দেখছি। জিআরপি থানায় কথা বলেছি। বিষয়টি গুরুত্বসহ দেখা হচ্ছে।

এসবি/এমই/এআইআর