চলতি মাসেই এইচএসসির ফল প্রকাশ!


সাহেব-বাজার ডেস্ক: আইন সংশোধন করে আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে এইচএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশের উদ্যোগে নিয়েছে সরকার। সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘ইন্টারমিডিয়েট অ্যান্ড সেকেন্ডারি এডুকেশন অর্ডিনেন্স ১৯৬১ (সংশোধন) অধ্যাদেশ ২০২০’, ‘বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড আইন, ২০১৮’ এবং বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড আইন, ২০২০’ এর খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, আইনে আছে, পরীক্ষা নিয়ে রেজাল্ট দিতে হবে। তবে এবার যেহেতু পরীক্ষা নেওয়া যায়নি, তাই ৭-১০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশে অধ্যাদেশ জারির প্রস্তাব করেছিল মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

তিনি বলেন, ছয় দিন পর সংসদের অধিবেশন বসবে। তাই অধ্যাদেশ নয়, আইনে সংশোধনী আনার সিদ্ধান্ত হয়েছে মন্ত্রিসভায়, যাতে ২৮ জানুয়ারির মধ্যে ফল প্রকাশ করা যায়।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের প্রেক্ষাপটে গত বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। এ অবস্থায় গত ৭ অক্টোবর শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলের গড় করে এইচএসসির ফল নির্ধারণ করা হবে। এক্ষেত্রে জেএসসি-জেডিসির ফলকে ২৫ এবং এসএসসির ফলকে ৭৫ শতাংশ বিবেচনায় নিয়ে এইচএসসির ফল ঘোষাণা করা হবে। তবে পরবর্তী সময়ে পরীক্ষা ছাড়া ফল প্রকাশে আইনি জটিলতা দেখা দেয়। পরে অধ্যাদেশ জারি করে ফল প্রকাশের প্রস্তাব দেয় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এইচএসসির ফল প্রকাশে অধ্যাদেশের প্রস্তাব এসেছিল। তবে সংসদের আসন্ন অধিবেশনে এটি আইনের সংশোধনী আকারে উত্থাপনের জন্য ভেটিংসহ অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

এসবি/জেআর