উচ্চ ঝুঁকিতে রাজশাহী, কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান বাদশার

  • 313
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত কয়েকদিনে শনাক্ত ও মৃত্যু বিবেচনায় দেশের করোনা পরিস্থিতির যে ব্যাপক অবনতি; তা নিতান্তই ভাবিয়ে তুলেছে সবাইকে। অদৃশ্য এই ভাইরাসে প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। এর থেকে বাদ নেই রাজশাহীও। সম্প্রতি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের করা ঝুঁকিপূর্ণ জেলার তালিকায় উত্তরের এই জেলাটির অবস্থান ছিলো এবার শুরু থেকেই। সবশেষ তথ্য অনুযায়ী— রাজশাহীতে করোনা শনাক্তের হার প্রায় ৩১ শতাংশ। পরিসংখ্যান মতে– সংক্রমণের লাগাম এখনই টেনে ধরতে না পারলে সামনে বড় বিপদের আশঙ্কা করছেন রাজশাহীর জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

এমন পরিস্থিতিতে সংক্রমণ রোধে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য রাজশাহীর মানুষের প্রতি বিশেষ আহ্বান জানিয়েছেন রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। সোমবার গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘‘এই মুহুর্তে গা ঢালা মনোভাব আগামীর জন্য হতে পারে চরম আত্মঘাতী। এ সময়ে সংক্রমণ রোধের যথেষ্ট সুযোগ থাকলেও খুব বেশিদিন এটি নাও থাকতে পারে। নিজের জীবন নিজের হাতে। রাজশাহীকে রক্ষা করতে হলে বৃহত্তর স্বার্থে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোন বিকল্প নেই।’’

করোনার প্রথম ধাপের প্রেক্ষাপট স্মরণ করিয়ে জাতীয় সংসদের সিনিয়র এই সদস্য বিবৃতিতে আরও বলেন, ‘‘গত বছর রাজশাহীতে করোনা শনাক্তের হার এতো দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পায়নি। যার কারণে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে স্বল্প হলেও কিছু সময় পাওয়া গিয়েছিল। রাজশাহীর মানুষকে বাঁচাতে জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমি আমার সর্বাত্মক করার চেষ্টা করেছি। এসবের পাশাপাশি সাধারণ মানুষও ঐক্যবদ্ধভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবশেষ করোনা প্রতিরোধে সক্ষম হয়েছিল। কিন্তু গতবারের চেয়ে এবারের পরিস্থিতি বেশি ভয়াবহ। সুতরাং কঠোর স্বাস্থ্যবিধি আমাদের মানতেই হবে ’’

বিবৃতিতে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক পড়ার ওপর সবচেয়ে বেশি জোর দিয়ে ওয়ার্কার্স পার্টির প্রধানতম এ নেতা বলেন, ‘‘মহামারীর শুরুতেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থসহ বিশেষজ্ঞরা সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্কের ওপর বেশি গুরুত্বারোপ করেছেন। সুতরাং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা ও ভিড়ের মধ্যে মাস্ক পরাই সংক্রমণ ঠেকাতে সবচেয়ে কার্যকর পদ্ধতি।’’

বিবৃতিতে ১৪ তারিখ থেকে সরকার ষোষিত লকডাউন কঠোরভাবে পালনের তাগিদ দিয়ে এমপি বাদশা বলেন, ‘‘যেভাবে ভাইরাস ছড়িয়েছে এ মুহুর্তে সরকারের দেয়া লকডাউন গুরুত্বসহকারে পালন আমাদের জাতীয় স্বার্থ। আমি বিশ্বাস করি, রাজশাহীর মানুষ পদ্মাপাড়ের সুন্দর এই সবুজ নগরীকে রক্ষা করতে লকডাউন ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংক্রমণ রোধে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখবে।’’

এসবি/জগদীস রবীদাস


  • 313
    Shares