আমার বাহিনী নেই, সহিংসতাও করি না


সাহেব-বাজার ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন(নাসিক) নির্বাচনে নৌকাকে পরাজিত করতে অনেক পক্ষ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী।

তিনি বলেন, আমাকে কীভাবে পরাজিত করা যায় তার চেষ্টা অনেকেই করছে। আমি মনে করি না আমার পক্ষ থেকে সহিংসতার মতো কিছু হবে। কারণ আমার ওই ধরনের কোনো বাহিনী নেই। আমি কোনো দিন সহিংসতা করিও নাই।

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার শেষ দিনে নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন আইভী।

সহিংসতার বিপক্ষে থাকবেন উল্লেখ করে আইভী বলেন, ‘আমার নির্বাচন সবচেয়ে বেশি জমজমাট। আমার যে কেন্দ্রগুলো জমজমাট, ভোট বেশি, সেখানে অন্যরা সমস্যা করতে পারে। যাতে আমার ভোটাররা কেন্দ্রে না আসতে পারে। সহিংসতা হলে আমারই ক্ষতি হবে। ’

তিনি জানান, আমি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে কথা বলেছি। তারা যেন কেন্দ্রগুলোতে সহিংসতার দিকে সজাগ থাকে সেটা বলেছি।

স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুরের বিষয়ে আইভী বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আমার সম্পর্কে চাচা। আমাদের বাসায় তার অনেক আগে থেকে যাতায়াত রয়েছে। তার সঙ্গে আমার খুব ভালো সম্পর্ক। কিন্তু ভোটযুদ্ধে আমরা প্রতিপক্ষ।’

তিনি আরও বলেন, নারী ও তরুণ ভোটাররা আওয়ামী লীগের পক্ষেই ভোট দেবে। আমার নারী ভোটাররা যেন আসতে পারে। আমার ইয়াং ভোটাররা যেন আসতে পারে। কারণ আমি জানি এই ভোটগুলো আমার। আমি নির্বাচনে জিতবই ইনশাল্লাহ।

‘আমি প্রশাসনের কাছে বরাবরই বলে আসছি যে, ভোটের দিন যাতে উৎসবমুখর থাকে। ’

আরেক প্রশ্নের জবাবে নৌকার প্রার্থী আইভী বলেন, ‘ঢাকা থেকে নির্বাচনী পরিবেশ পর্যবেক্ষণে এসেছে কেন্দ্রীয় নেতারা। এখানে কোনো ঝামেলা হচ্ছে কিনা, তা পর্যবেক্ষণ করছে। এখানে প্রভাবিত করার কিছু নেই।’

“নির্বাচন যদি সুষ্ঠু ও স্বাভাবিক হয়, কোথাও যদি কেন্দ্র বন্ধ না হয়, তাহলে ইনশাল্লাহ আমি লক্ষাধিক ভোটের ব্যবধানে পাস করব। এটা আমার চাচা (তৈমুর) নিজেও জানেন যে, আমার এখানে কী অবস্থান।”

সবগুলো নির্বাচনই চ্যালেঞ্জিং ছিল উল্লেখ করে আইভী বলেন, ‘এই নির্বাচনে চ্যালেঞ্জ একটু বেশি। এর বিভিন্ন কারণ রয়েছে।’

এসবি/জেআর