অনলাইনে নয়, আগের মতোই বইমেলা

  • 1
    Share

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ভার্চ্যুয়ালি নয় শারীরিক উপস্থিতেই অমর একুশে বইমেলা ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে। তবে তারিখে পরিবর্তন আসবে। রোববার বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজীর সঙ্গে বৈঠক শেষে এ তথ্য জানিয়েছেন জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতির সভাপতি ফরিদ আহমেদ।

এর আগে করোনার কারণে আগামী বছরের অমর একুশে গ্রন্থমেলা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমি। তবে প্রতিষ্ঠানটির ওই সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত হতে পারেননি লেখক ও প্রকাশকরা।

বাংলা একাডেমির সিদ্ধান্তের পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে কথা বলেন অনেকেই। অনেকে আবার গণমাধ্যমকেও প্রতিক্রিয়া জানান।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কায় এবার ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২১’ ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে বলে জানায় বাংলা একাডেমি। বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী গণমাধ্যমকে বলেন, আগামী বছরে অমর একুশে গ্রন্থমেলা ভার্চুয়ালি কীভাবে আয়োজন হবে এবং বইমেলার জন্য স্টল বসিয়ে কোন মাসে আয়োজন করা সম্ভব হবে সেসব বিষয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

গত বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) অমর একুশে গ্রন্থমেলার আয়োজক কমিটি বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। প্রতিবছর এই মেলাকে কেন্দ্র করে লেখক, পাঠক ও প্রকাশকরা চাঙা থাকেন। কিন্তু এবার করোনার কারণে প্রকাশনায় ও স্টল বরাদ্দে ভাটা পড়েছে। স্টল বরাদ্দ নিয়ে তাদের আগ্রহই ছিল না। গতবার একুশে গ্রন্থমেলায় ৫৬০ প্রতিষ্ঠান স্টল ও প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ নিয়েছিল, এবার এ পর্যন্ত ৮৬ স্টল ও প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ হয়েছে।

জানা গেছে, অমর একুশে গ্রন্থমেলার স্টল বরাদ্দের শেষ সময় ছিল ৭ ডিসেম্বর। এই সময়ের মধ্যে মাত্র ৮৬ জন স্টল ও প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করেছে। কিন্তু প্রকাশনার সঙ্গে জড়িত দুই সমিতি ‘বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি’ ও ‘বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশক সমিতি’র কেউই স্টল বা প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করেননি।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক বলেন, করোনা মহামারীর কারণে এবার পহেলা ফেব্রুয়ারি বইমেলা হচ্ছে না। তবে আমরা যদি দেখি, জানুয়ারি মাসে সময় ভালো যাচ্ছে, তাহলে ফেব্রুয়ারি মাসেই আয়োজন করবো। তবে অবস্থা বিবেচনা করে স্টল বসিয়ে পহেলা ফেব্রুয়ারির উদ্বোধনী তারিখ স্থগিত করলাম। এই তারিখ থেকে ভার্চুয়াল মেলার আয়োজন করা হবে। মেলা বাতিল হয়নি। শুধু বর্তমান পরিস্থিতিতে নির্ধারিত তারিখে মেলা শুরু হবে না।

এর আগে, করোনার কারণে আসন্ন অমর একুশে বইমেলা স্থগিত করার প্রস্তাব করে বাংলা একাডেমি। এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

প্রতিবছর অমর একুশে গ্রন্থমেলায় বই বিক্রির এই বিচ্ছিন্ন প্রচেষ্টা বাংলা একাডেমিকে সুপরিকল্পিত গ্রন্থমেলা আয়োজনের জন্য ভাবিয়ে তোলে। অমর একুশে গ্রন্থমেলার উত্তাপ রাজধানীর গণ্ডি পেরিয়ে ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে।

এসবি/এমই


  • 1
    Share