Ad Space

তাৎক্ষণিক

সাংসদ বাদশার প্রচেষ্টায় রাজশাহীর শিক্ষা উন্নয়নে শেষ হয়েছে ৯০ শতাংশ কাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার প্রচেষ্টায় রাজশাহীর বিভিন্ন প্রকল্পের ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।  এনিয়ে বর্তমানে পঞ্চাশটি প্রকল্প চলমান। আর তা বাস্তবায়ন করছে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর। এ সব প্রকল্পের আওতায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। রাজশাহী শিক্ষা প্রকৌশল দফতরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, নগরীর পাঁচটি বেসরকারী বিস্তারিত…

তানোরে বিনা মূল্যে চক্ষু সেবা

তানোর প্রতিনিধি : তানোরে বে-সরকারী সংস্থা শাপলা গ্রাম উন্নয়ন সংস্থার উদ্দ্যোগে বিনা মূল্যে ৩শ’ ৪৫জন নারী পুরুষকে চক্ষু সেবা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৪জনকে ছানী অপারেশন করে লেন্স লাগানো হবে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দিন ব্যাপি তানোর উপজেলার কামারগাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত চক্ষু শিবির সেবা ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন রাজশাহী জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমিত চৌধুরী। বিস্তারিত…

রাজশাহীতে মাদক ব্যবসায়ীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে এক মাদক ব্যবসায়ীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ড প্রাপ্ত আসামী রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার কাদিপুর এলাকার মহিউদ্দিনের ছেলে রকিবর রহমান (২০)। বুধবার দুপুরে রাজশাহী বিশেষ দায়রা জজ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২ এর বিচারক কেএম শহীদ আহম্মেদ এর রায় প্রদান করেন। সেই সাথে আসামীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেন। বিস্তারিত…

রাস্তার মাঝে গর্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীর বোয়ালিয়া পাড়া সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপিকা জিনাতুন নেসার বাড়ির সামনের রাস্তা। রাস্তাটি সরু হলেও শটকার্ট হিসেবে নিউমার্কেট এলাকা থেকে সাহেববাজার যাতাযাতের জন্য পথচারীরা রাস্তাটি ব্যবহার করে থাকে। ওই রাস্তার মাঝে একটি বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। রাস্তার মাঝে বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ার কারণে পথচারিদের চলাচলে চরম অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে। প্রায় ওই গর্তে পড়ে বিস্তারিত…

স্মৃতি সততই সুখের নয় । হাসান আজিজুল হক

বেশ ক’বছর আগে স্ত্রী, পুত্র, পুত্রবধূ, দৌহিত্র, কন্যা ও বড় বোনকে নিয়ে এক বার বেশ দল বেঁধে রাঢ়ের বর্ধমান জেলায় যবগ্রামে এসেছিলাম। তখন অবশ্য দেখেছিলাম, আমার শৈশবের গ্রামটি অনেক বদলেছে। তার পরেও মনে হয়েছিল, বদল যা-ই ঘটে থাকুক না কেন, মূল গ্রামটির আমূল কোনও পরিবর্তন ঘটেনি। বেশ মনে পড়ছে, গ্রামের খুব লাগোয়া যে বড় দিঘিটি বিস্তারিত…

সাদত হাসান মান্টো’র গল্প । তোবা তেক সিং

সাদত হাসান মান্টো (১৯১২-১৯৫৫) উর্দু ভাষার প্রখ্যাত গল্পকার। ১৯১২ সালে ভারতের লুধিয়ানা জেলার সাম্ব্রলায় তাঁর জন্ম। দেশ বিভাগের পর তিনি জন্মভূমি ত্যাগ করে পাকিস্তানের লাহোরে বসবাস করতে বাধ্য হন। তাঁর নির্বাচিত ছোটগল্প সংকলন ‘নমরুদ কে খুদা’ এবং ‘গজ্ঞে ফেরেস্তা’ বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য। দেশ বিভাগের পটভূমিকায় সংঘটিত নির্মম বর্বরতার বাস্তবচিত্র তাঁর ছোটগল্প সংকলন সিইয়াহ হাশিইয়া। দেশবিভাগের বিস্তারিত…

সাইফুল ইসলামের গল্প । পাড়ি

বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে ঘরবাড়ি। বসে বসে যারা ঝিমুচ্ছিল বা ঘুমিয়ে পড়েছিল, এক ঝাঁকুনিতে জেগে ওঠে তারা। অন্ধকারে হাতড়ে বেড়ায় একে অপরকে। মনে হয় ভারী কোন বোমা ফেটেছে কোথাও। ঠাওড় করার চেষ্টা করে কোথায় ফেটেছে বোমাটি। ঘর থেকে বের হয় সলিমুদ্দিন। বাড়ির ঢালে লাউয়ের মাঁচার নিচে যায় সে। শামসুল, মুন্নাফসহ সাত/আট জন সেখানে বসে আছে। বিস্তারিত…

লন্ডন : বসন্তের শীতল কবিতা । আজাদুর রহমান

ছবির নদী আর বাস্তবের নদী এক নয়! শহরে ঢোকার মুখে টেমসকে খণ্ড খণ্ড করা হয়েছে, তারপর জালের মত করে জনপদের বিবিধ অলিগলিতে পাঠিয়ে দিয়েছে সরকার। তারপর যা হয়! বারোয়ারি অলিগলি ঘুরে ফালতু ময়লা আর ঘোলাজল মুখে করে ছোট ছোট খালাকৃতির নালাগুলো ক্ষণে ক্ষণে ফের মূল টেমসে মিশে গিয়ে কোন মতে প্রাণ হাতে পেয়েছে। ফলে মূলনদী বিস্তারিত…

ঈদসংখ্যা : লেখকের প্রতারণা-বাণিজ্য । অনুপম হাসান

সাহিত্য পণ্য কিনা প্রশ্ন তোলা হলে অনেকেরই আত্মসম্মানে আঘাত লাগবে, বলবেন এ আবার কেমন কথা? নিশ্চয় সাহিত্য পণ্য নয়। একথা আপনাদের মতো আমিও স্বীকার করি, বিশ্বাস করি সাহিত্য পণ্য নয়। কেননা পণ্যের বাজারমূল্য আছে, সাহিত্যের কী তাই হয়? নাকি বাজারমূল্য দিয়ে সাহিত্যের বিচার হতে পারে? এসব প্রশ্নের জবাব দিতে গেলে ভেতরের যুক্তিবোধ গুলিয়ে যায়, আমরা বিস্তারিত…