Ad Space

তাৎক্ষণিক

রাজনীতিতে শতভাগ শুদ্ধতা আশা করা কতটা যৌক্তিক । মোশাররফ হোসেন মুসা

উচ্চমাধ্যমিকে পড়ার সময় জনৈক প্রবীণ রাজনীতিকের মুখে শোনা একটি কথা বেদবাক্য মনে করে দীর্ঘদিন বন্ধু-বান্ধবের কাছে বিতরণ করেছি, তা হলো– ‘দেশপ্রেমের পরীক্ষায় একশ নম্বরের মধ্যে একশই পেতে হয়। নিরানব্বই পেলেও তাকে পাশ মার্ক দেওয়া চলে না।’ পরে বুঝেছি তিনি মতবাদী দর্শন থেকে কথাটি বলেছিলেন। একই দর্শনে উদ্বুদ্ধ হয়ে কতিপয় রাজনীতিক-বুদ্ধিজীবী সরকারের কাছে শতভাগ শুদ্ধতার শাসন বিস্তারিত…

বাংলাদেশ-চীন সম্পর্কে নতুন দিগন্ত উন্মোচন । মনোজিৎকুমার দাস

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ঢাকায় প্রায় দুদিনের জন্য সফর করে গেলেন। এই সফর বাংলাদেশ ও চীন দুদেশের ৪০ বছরের কূটনৈতিক সম্পর্কের ইতিহাসে তাৎপর্যময় বলা যায়। এই তাৎপর্য  সামনের দিনে ক্রমশ উন্মোচিত হবে। বাংলাদেশের বিদ্যুৎ, জ্বালানি, যোগাযোগ, তথ্যপ্রযুক্তিসহ অবকাঠামো খাতে প্রায় ২ হাজার ৪০০ কোটি ডলার (২৪ বিলিয়ন ডলার) খাতে অর্থায়ন করতে সম্মত হয়েছে চীন। চীনের বিস্তারিত…

বাংলাদেশের জাতীয় চার নেতা হত্যাকাণ্ড প্রসঙ্গ । অনুপম হাসান

বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট যে নির্মম হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয় তার সমতুল্য কোনো ট্র্যাজিক হত্যাকাণ্ড পৃথিবীর ইতিহাসে দ্বিতীয়টি আছে বলে আমাদের জানা নেই। নির্মম এই কালরাতে বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি এবং তাঁর পরিবারের ১৫জন সদস্যকে হত্যা করেছিল বর্বর ঘাতকদল। স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় কেন জাতির পিতা নিহত হলেন? প্রশ্ন হচ্ছে– শুধুই কী রাষ্ট্রক্ষমতা বিস্তারিত…

২৮ অক্টোবর, গণতন্ত্রের লড়াই এবং শহীদ রাসেলের আত্মদান। বাপ্পাদিত্য বসু

২৮ অক্টোবর। বাংলাদেশের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার পুনরুদ্ধারের সংগ্রামের ইতিহাসের এক অনবদ্য দিন। তৎকালীন বিএনপি-জামাত-চার দলীয় জোটের অপশাসন, গণতন্ত্র ছিনতাইয়ের হাত থেকে দেশ ও জনগণকে মুক্ত করার এক অবিনশ্বর লড়াইয়ের সে দিন। ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট সপরিবারে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার পর থেকেই বাংলাদেশ রাষ্ট্রের চরিত্র ক্যান্টনমেন্টের অস্ত্রের জোরে আর উর্দিধারীদের জোর করে দখল বিস্তারিত…

আমেরিকার নির্বাচনী গর্ব এবারে খর্ব হতে পারে!

সাহেব-বাজার ভাষ্যকার : এটা প্রায় নিশ্চিত যে, ট্রাম্প হেরে গেলে তিনি হিলারি ক্লিনটনকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিনন্দন জানাবেন না। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের যে ঐতিহ্য আমেরিকার ছিল, এবার তা স্থায়ীভাবে বিতর্কিত হতে পারে। এর আগে ডেমোক্রাট প্রার্থী আল গোর নিরবে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের রায় মেনেছিলেন। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্প আগামী মাসের নির্বাচনে হারলে নির্বাচনী ফল নাকচ বিস্তারিত…

স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের ভিত্তি গড়তে কৃষিতে নারীর অবদানের সর্বজনীন স্বীকৃতি চাই । মোজাহিদুল ইসলাম নয়ন

বাংলাদেশে তথা এই অঞ্চলে ঐতিহ্যগতভাবে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে নারীর অবদান সর্বাধিক। বিশেষ করে কৃষি উৎপাদন উৎপাদন কৌশল, বীজ ও পণ্য সংরক্ষণ এবং ফসল আহরণ সর্বপর্যায়ের সাথে নারীর রয়েছে নিবিড় যোগাযোগ। আর কর্মসংস্থান,  অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি তথা জীবিকায়নে এখনও কৃষির ভূমিকাই সর্বাধিক বলা যেতে পারে তা আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। ফলে কৃষি, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং টেকসই জীবিকায়নে বিস্তারিত…

সৃজনশীলতার মূলমন্ত্র । তামিম শিরাজী

‘লেখাপড়া করে যে গাড়ি ঘোড়া চড়ে সে’ এই ছোট্ট লাইনটি ঘিরেই আমাদের শিক্ষাজীবন পরিচালিত হয়। ছোটবেলায় অত্যন্ত সুকৌশলে আমাদের মগজে গেথে দেওয়া এই বাক্য গোটা জাতি আজ ঐশীবাণী রূপে ধারণ করেছে। আমাদের দেশে গাড়ি, বাড়ি অর্থাৎ অর্থ উপার্জন শিক্ষার মূললক্ষ্য হলেও শিক্ষার মূল উদ্দেশ্য আসলে জ্ঞান অর্জন ও তার বিকাশ। মুখস্তবিদ্যা নির্ভর আমাদের শিক্ষাব্যবস্থায় শিক্ষার্থীরা বিস্তারিত…

আমার ভাঙা রেকর্ড । মুহম্মদ জাফর ইকবাল

১. দেশ কিংবা দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে মানুষজন যখন হা-হুতাশ করে, আমি সাধারণত সেগুলো খুব গুরুত্ব দিয়ে নিই না। সারা পৃথিবী এখন স্বীকার করে নিয়েছে নতুন পৃথিবীতে পার্থিব সম্পদ থেকেও বড় সম্পদ হচ্ছে জ্ঞান। কাজেই একটা দেশের তেল, গ্যাস, কল-কারখানা, সোনা, রুপা, হীরার খনি না থাকলেও ক্ষতি নেই যদি সেই দেশে মানুষ থাকে আর সেই মানুষের বিস্তারিত…

রাজনীতিবিদদের স্মৃতিশক্তি । অধ্যাপক ফজলুল হক

যেকোনো দেশে রাজনীতিবিদরা সেই দেশ ও জনগণের ভালোমন্দের নিয়ামক। সুতরাং দেশের মানুষ প্রতিটি রাজনীতিকের কাছে তাঁর কথা ও কাজে পারফেকশন আশা করে। জানি না, বাইরের দেশের রাজনীতিকরা এ ব্যাপারে কতটুকু আত্মসচেতন। তবে, আমাদের রাজনীতিকরা (সবাই হয়তো নন) এ ব্যাপারে মোটেও আত্মসচেতন নন। উদাহরণ হিসেবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কথাই বলি। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিস্তারিত…

রেলওয়ে হোক আরো যাত্রীবান্ধব । আ ক ম সাইফুল ইসলাম চৌধুরী

একশত বছরেরও বেশি পুরাতন বাংলাদেশ রেলওয়েতে এখন নব উত্থানের ঢেউ লেগেছে। নতুন রেলপথ নির্মাণ, নতুন কোচ আমদানি প্রভৃতির কারণে মানুষ রেলের প্রতি আরো বেশি আস্থাবান হচ্ছে। যাত্রীরা আশা করে—রেলের প্রসার লাভের পাশাপাশি যাত্রী সেবার মাত্রাও বাড়বে। যে যুগে আমাদের দেশে রেলওয়ে চালু হয়েছিল তখন ছিল আমাদের পরাধীনতার কাল। যাত্রী সেবার চেয়ে বাণিজ্যই ছিল প্রধান উদ্দেশ্য। বিস্তারিত…