জানুয়ারি ১৮, ২০১৮ ৫:৩৪ পূর্বাহ্ণ

Home / আকাশলীনা (page 4)

আকাশলীনা

বিধান সাহার মুক্তগদ্য । তুলসীগঙ্গা

বিধান সাহার মৃক্তগদ্য । তুলসীগঙ্গা

১. নগরে, গ্রাম্যবৃষ্টিতে ভিজতে ভিজতে ঘরে ফেরা হলো। শিস বাজাতে বাজাতে, ‘আমি অল্প নিয়ে থাকতে পারি যদি পাই একটু ভালোবাসা’ গাইতে গাইতে, রিকশা, দ্রুতগতির গাড়ি, ছাতাবৃত মানুষ, এসব পাশ কাটিয়ে কাটিয়ে— আমি ছুটছি— হাওয়ায়— বৃষ্টিতে। এই বৃষ্টি জানে না, একদিন …

Read More »

নিরমিন শিমেলের গল্প । বেইচ্ছা

সন্ধ্যা গাঢ় হাতে থাকে। অদূরে বিন্নার ঝোপে ছোপ ছোপ কালো অন্ধকারে একটা দু’টো করে জোনাকি আলো জ্বালতে শুরু করে। তারই ফাঁকে রুপালি সিঁথির মত সরু মেঠোপথ, উলপন এ পথে ফিরে যেতে থাকে।

`ও বাফো! চিক্টা মাটি দি পাও কেমন ন্যালপা ন্যালপা নাগেছে। বাঁশের পুলত মুই পিছলি যাওছো বাহে।’ প্রায় পনের কিলো ওজনের মাটির ডালা মাথায় নিয়ে বাঁশের সরু সাঁকো দিয়ে খানিকটা এগিয়েই থমকে যায় উলপন। এখনও অনেকটা পথ বাকি। প্রশস্ত খালের ওপর …

Read More »

শহীদ কাদরীর জন্যে… । টোকন ঠাকুর

শহীদ কাদরীর হিমায়িত শরীর স্বদেশে ফিরছে। জীবনের বেশিরভাগ সময় যার বিভূঁইয়েই কেটে গেছে। মনে হচ্ছে, এও এক কবিতাময় জীবন, শহীদ কাদরীর জন্যে।

যা দোষ, তাই তার অহঙ্কার। কবিতার। কবি দোষী এবং অহঙ্কারী। খুব অল্প কিছু মানুষ সেই দোষ মেনে নিয়ে কবির অহঙ্কারকে স্বীকৃতি দিতে ভালোবাসে। যারা বাসে, তারাও কিছুটা দোষী, অহঙ্কারী। দোষ, ভাষাভিত্তিক মুখের কয়েকটা শব্দ এসে রচিত হলো যেই একটা বাক্য, …

Read More »

সেলিনা শেলীর কবিতা

প্রত্ননারী দিগন্তের দীর্ঘরেখা ধরে উড়ে যেতে যেতে ভাবছিলাম-- তোমার আকাশে এখন শাদাভাত ভোর।

প্রত্ননারী   দিগন্তের দীর্ঘরেখা ধরে উড়ে যেতে যেতে ভাবছিলাম– তোমার আকাশে এখন শাদাভাত ভোর। তুমি ওমবালিশে মুখ গুঁজে অজন্তা ইলোরার মতো কোনও এক ধোঁয়াশায় হেঁটে যেতে যেতে ভাবছো জীবনের প্রবহমানতা। মুগ্ধতার আঙুলে লাগা টেরাকোটার লালচে ধুলোয় কপালের টিপ রাঙিয়েছো। মূলত …

Read More »

আমার সাম্প্রতিক কবিতা-ভাবনা । ওয়ালী কিরণ

আমার সাম্প্রতিক কবিতা-ভাবনা । ওয়ালী কিরণ

কবি তৈরির কোনো কারখানা নেই। কবি শয়ম্ভূ, জন্মগত। কবি হওয়াটা তাই তার নিয়তি। সম্ভবত কবি-শিল্পী-বিজ্ঞানী-অংকবিদ এরকম অভিধাপ্রাপ্ত লোকেরা জন্মগতভাবেই সে রকম মস্তিস্ক বা প্রতিভা নিয়েই জন্মায়। সবাই অংকে ভাল হয় না কিন্তু হয়তো একই ছেলে ইতিহাস বা সাহিত্যে ভাল করছে– …

Read More »

বর্ষা । সনৎকুমার সাহা

প্রকৃতি যে উত্তেজনা ছড়ায়, তাতে নারী-পুরুষের সাড়া দেবার বর্ণাঢ্য চিত্রমালা প্রধান হয়ে উঠেছে। কবির রসবোধ ও কাব্যকলা এখানেও উল্লেখ করার মতো। তবে শৃঙ্গারই এখানে মূল রস। এবং অতিমাত্রায় প্রবল।

পঞ্চম শতকে সংস্কৃতে কলিদাস রচনা করেছিল ঋতু-সংহার। তাতে পর পর ছয় ঋতুর প্রতিটিতে-বর্ষাতেও-প্রকৃতি যে উত্তেজনা ছড়ায়, তাতে নারী-পুরুষের সাড়া দেবার বর্ণাঢ্য চিত্রমালা প্রধান হয়ে উঠেছে। কবির রসবোধ ও কাব্যকলা এখানেও উল্লেখ করার মতো। তবে শৃঙ্গারই এখানে মূল রস। এবং অতিমাত্রায় …

Read More »

মামুন রশীদের কবিতা : সামাজিক পরিপ্রেক্ষিত । মোহাম্মদ নূরুল হক

মামুন রশীদের কবিতা : সামাজিক পরিপ্রেক্ষিত । মোহাম্মদ নূরুল হক

সমাজের প্রভাব আর দশটি সাধারণ মানুষের মতো কবি-শিল্পীর ওপরও পড়ে। তবে, সাধারণ মানুষ সমাজের প্রভাবে প্রভাবিত হন, কবি-শিল্পীরা সে প্রভাব কাটিয়ে উঠে সমাজকেই প্রভাবিত করেন। অন্তত প্রভাবিত করার চেষ্টা করেন। অন্য আর দশজনের সঙ্গে কবির পার্থক্য এখানে। একুশ শতকের শুরুতে …

Read More »

শফিনাজ শিরিনের পাঁচটি কবিতা

শফিনাজ শিরিনের পাঁচটি কবিতা

প্রতিবেশী   সে আর আমি প্রতিবেশী ঘ্রাণে আর গ্রন্থনায় আমারই দেয়াল ঘেঁষে তার বাস। আদিম, নগ্ন, আলোর সহযাত্রী। নিমন্ত্রণ লাগে না অভ্যাসে আসে প্রতিদিন, অস্বস্তিকর।   প্রচণ্ড দাপটের সাথে বেড়ে ওঠা আমার শিশু গাছটিকে সে গিলে ফেলতে চায়। আমি তো …

Read More »

সুঁইজন্ম জানে কার বুকের কাছে কতটা সেলাই । শামীম হোসেন ও রিমঝিম আহমেদ

সুঁইজন্ম জানে কার বুকের কাছে কতটা সেলাই । শামীম হোসেন ও রিমঝিম আহমেদ

তেঁতুলবনে জোছনা ঘুমিয়ে গেলে পাতার শিরায় একদিন আত্মহত্যা লিখব। আজ চল বৃষ্টির নামতা গুনি! অন্ধ হাতিকে পোষ মানানোর মন্ত্র শিখে নিই খোঁড়া মাহুতের কাছে…. শুকনো পাতার শিরায় লুকিয়ে আছে আমাদের যৌথ জীবন! বনের মাহুত জানে কীভাবে রেখা ও রঙ ছড়িয়ে …

Read More »

বর্ষা, বিরহ, কবিতা । চন্দন আনোয়ার

বর্ষা, বিরহ, কবিতা । চন্দন আনোয়ার

মানুষের আবেগ-অনুভূতির উপরে প্রকৃতির প্রভাব চিরকালই আছে। শিল্প-সাহিত্য মানুষ ও মানুষের জীবনের বাইরে কিছু নয়। শিল্প-সাহিত্যে প্রকৃতির স্থান আলাদা করে বিচার করার কিছু নেই। মানুষের শরীরের মতো কবিতার শরীর নির্মাণের প্রধান উপকরণ প্রকৃতি। প্রকৃতিই কবিতা। সাহিত্যের তো শেকড় খুঁজে পাওয়া …

Read More »

সাত কবির বর্ষার কবিতা

সাত কবির বর্ষার কবিতা

জুলফিকার মতিন কবিরা কোথায়   কবিদের খোঁজে বৃষ্টির অভিযান কাল রাত থেকে শুরু হয়ে গেছে–বিরতিবিহীন ধারা, মাঠ-ঘাট জুড়ে…পথেপ্রান্তরে….ছাদে আর কার্নিশে ঘনঘোর তার নূপুরের ধ্বনি বেজে চলে অবিরাম।   নেমেছে বৃষ্টি ঝাউয়ের পাতায় তৃণদল এলোমেলো বনানী শীর্ষে বিদ্যুৎ মেয়ে নিমিষে নিমিষে …

Read More »

মিঠুন রাকসামের তিনটি কবিতা

মিঠুন রাকসামের তিনটি কবিতা

খরার কাল পড়ে আছে বন্ধ্যা জমি দীর্ঘ খরার বুকে মুখ গুঁজে ধু ধু হাওয়া খেলে বুনো কাঁটা দুলে দীর্ঘ দীর্ঘদিন বন্ধ্যা হয়ে আছে ভূমি…   পাঠক আমাদের সংঘর্ষগুলো দূর নক্ষত্রের আলো তাকিয়ে থাকতে থাকতে অন্ধ হয়ে যায় দর্শক বই তারাই …

Read More »

শাপলা সপর্যিতার কবিতা

শাপলা সপর্যিতার কবিতা মুছে দিও একশ চাঁদের মুখ

মুছে দিও একশ চাঁদের মুখ তুমি ছায়া কিংবা প্রচ্ছায়া যায়ই হও মুছে দিও নষ্ট চাঁদের ছবি দিনের আলোয় বরং খুলে দিও সূর্যের মুখ প্রতিদিন সেখানে উড়তে দিও ঘননীল প্রজাপতি ঠোঁটে দিও তার কিছু মিষ্টি কথা পানপাতা মুখে এঁকে দিও সোনার …

Read More »

ধেড়ে ইঁদুর । কাজী লাবণ্য

নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েটি আশ্চর্য রকম প্রাণবন্ত, শৌখিন, আর সংস্কৃতিমনা।

নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়েটি আশ্চর্য রকম প্রাণবন্ত, শৌখিন, আর সংস্কৃতিমনা। সে নিজে কলেজে পড়ে, গান শেখে আবার একজন নিবেদিত নাট্যকর্মী। এই নাটক করার পথে কত বাধা বিপত্তি এসেছে, কিন্তু সে সকল বিপত্তি ওর নিজস্ব তীব্র ভালোলাগার কাছে মাছির মত উড়ে গেছে। …

Read More »

নুসরাত নুসিনের কবিতা

সুদূর সিলভিয়া প্লাথ সান্ত্বনার সমসঙ্গী হলে হঠাৎ মৃত্যুর মতো চোখের পাতা ডুবিয়ে একটা গহীন সমতলে ভ্রমণ এগিয়ে নেই।

অগস্ত্যযাত্রার শঙ্খধ্বনি সুদূর সিলভিয়া প্লাথ সান্ত্বনার সমসঙ্গী হলে হঠাৎ মৃত্যুর মতো চোখের পাতা ডুবিয়ে একটা গহীন সমতলে ভ্রমণ এগিয়ে নেই। স্মৃতিরা অনতি ও নিকট জেগে ওঠে, ভাসমান ডিঙিতে দুলদুল, প্রিয় শোকের মাতম হয়ে নিজেকে হস্র করে। প্রত্যেকটি গল্পই সংক্ষিপ্ত ও …

Read More »

জাকির জাফরানের কবিতা

আগন্তুক কত শত বেদনার উদ্ভাবক তুমি হে আগন্তুক,

স্তব্ধতার মেয়ে দেহভর্তি সবুজ সংকেত নিয়ে আসে- কে সে? কেন বৃথা-মাদলের ধ্বনি নিয়ে আসে সে এ লৌহতন্ত্রের শহরে? এত সবুজ সংকেত পাতাদেরও নেই। পাখিদেরও নেই। আছে শুধু তার। একজোড়া পায়রার স্বপ্নে ডুবে থাকি, ডুবো ডুবো পৃথিবীর তীরে দীর্ঘ হাহাকার হয়ে …

Read More »

গালিব রহমানের কবিতা

গালিব রহমান শৈশব বেতুলের গন্ধ ছড়ানো বিকেল কিংবা বকুলে পড়ন্ত জোছনা

শৈশব বেতুলের গন্ধ ছড়ানো বিকেল কিংবা বকুলে পড়ন্ত জোছনা দিনের সেইসব ছায়ার হিমেল এখনো ভাসায় আমার মোহনা প্রণয় কে আসে কে যায় ফিরে ছায়া পড়ে রয় তার সে ছায়ায় খুঁজি মন খূঁজি কোমল অভিসার বিপরীত রোদের কণায় ধুলো লেগে গেলে …

Read More »

লোরকার খোঁজে স্পেন । আহমেদ মুনীরুদ্দিন

গ্রানাডার দিকে তাকিয়ে থাকা পাহাড় সারিতে ছোট্ট গ্রাম ভিজনার। গ্রামের ধার দিয়ে পাহাড়ের আরও ভেতরে যাওয়ার

লোরকা ১৮৯৮ সালের ৫ জুন জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৩৬ সালের ১৯ আগস্ট তাঁকে হত্যা করা হয়।যুদ্ধের দিনগুলোতে মানুষ হারিয়ে যেতে থাকে। কারও দরজায় টোকা পড়ে। কেউ গুম হয়ে যায়। কাউকে চোখ বেঁধে দাঁড় করিয়ে রাখা হয় প্রকাশ্য ফায়ারিং স্কোয়াডে। দেশে দেশে, …

Read More »

একটা কাকের মৃত্যুতেও শোক হয় । আবুল বাসার

একটা কাকের মৃত্যুতেও শোক হয় । আবুল বাসার তালহা যদিও বারবার বলেছে, তাদের গ্রামে দেখার মতো তেমন কিছুই নেই। পাহাড় নেই, পাহাড়ের বুকে নেই ঝর্ণাধারার কল্কল্ শব্দ। সরিষার তেল ভাঙানো ঘানি নেই, নেই গল্প-উপন্যাসের পোস্ট অফিসের মতো একজন ডাকপিয়ন কাম পোস্টমাস্টার।

তালহা যদিও বারবার বলেছে, তাদের গ্রামে দেখার মতো তেমন কিছুই নেই। পাহাড় নেই, পাহাড়ের বুকে নেই ঝর্ণাধারার কল্কল্ শব্দ। সরিষার তেল ভাঙানো ঘানি নেই, নেই গল্প-উপন্যাসের পোস্ট অফিসের মতো একজন ডাকপিয়ন কাম পোস্টমাস্টার। এখানে গোধূলিবেলায় পশ্চিম দিগন্তে সূর্যটা ডুবে গেলে …

Read More »

বর্ষা জহীনের কবিতা

বর্ষা জহীনের কবিতা ক্ষয় স্বপ্নরা বড় কেটে কেটে যাচ্ছে কেটে নিয়ে যাচ্ছে আস্ত আস্ত দিন, রাত

ক্ষয়   স্বপ্নরা বড় কেটে কেটে যাচ্ছে কেটে নিয়ে যাচ্ছে আস্ত আস্ত দিন, রাত আমি বিমূঢ়, নির্বাক- ভাবছি কাটুক বাহির, ভেতরে নয় ক্ষয় তবু সর্বত্রই হয়!   প্রেম   আজও দুটো শালিক হাঁটাহাঁটি করে গেলো সামনের রাস্তায় রোজকার মতোন তাদের …

Read More »

বাঙালির একবুক প্রাণের কবি । হাসান রাজা

বাঙালির একবুক প্রাণের কবি । হাসান রাজা বিশ্বসাহিত্যসভার আলোকিত পরিমণ্ডলে বাঙালি কবি হিসেবে কাজী নজরুল ইসলামের ভূমিকা অনন্য। কাব্যসৃষ্টির উৎসমূলে পরম প্রকৃতির অশেষ প্রকাশ বেদনাকে মূর্তিমান করে তোলার সৃজনশীল ফল্গুধারায় অবগাহনের অলৌকিক শক্তিমত্তার নিরন্তর সার্থক প্রতিনিধি পুরুষোত্তম কাজী নজরুল ইসলাম।

বিশ্বসাহিত্যসভার আলোকিত পরিমণ্ডলে বাঙালি কবি হিসেবে কাজী নজরুল ইসলামের ভূমিকা অনন্য। কাব্যসৃষ্টির উৎসমূলে পরম প্রকৃতির অশেষ প্রকাশ বেদনাকে মূর্তিমান করে তোলার সৃজনশীল ফল্গুধারায় অবগাহনের অলৌকিক শক্তিমত্তার নিরন্তর সার্থক প্রতিনিধি পুরুষোত্তম কাজী নজরুল ইসলাম। অসামান্য মানবিক বোধের বিশ্বজনীন হৃদয় নিয়ে তিনি …

Read More »

মোহাম্মদ নূরুল হক-এর কবিতা

মোহাম্মদ নূরুল হক-এর কবিতা নাস্তার টেবিল এই নাস্তার টেবিলে সকালের সূর্য আস্ত রুটি! আর আমি সেই গনগনে রোদে পিপাসা মেটাই লোকে ভাবে—

নাস্তার টেবিল   এই নাস্তার টেবিলে সকালের সূর্য আস্ত রুটি!   আর আমি সেই গনগনে রোদে পিপাসা মেটাই লোকে ভাবে— প্রবল তৃষ্ণাকাতর মানুষেরা ক্ষুধা ভুলে যায় হয়তো এমন কোনো অলৌকিক কারণ রয়েছে না হলে সূর্যের লালে কেন মেটে জলের পিপাসা! …

Read More »