Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • নাটোরে তিন দিনব্যপী জেলা আঞ্চলিক ইজতেমা শুরু– বিস্তারিত....
  • চারঘাটে জেএমবি সদস্য মজনুর আটক– বিস্তারিত....
  • বাসচালক জামিরের কারাদণ্ডের প্রতিবাদে রাজশাহীতে বিক্ষোভ– বিস্তারিত....
  • নাটোরে আফতাব ফিড কোম্পানির কারখানায় অগ্নিকাণ্ড– বিস্তারিত....
  • নিউইয়র্কে ছুরিকাঘাতে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীর মৃত্যু– বিস্তারিত....

গর্ভ ও অন্যান্য কবিতা । উদয়ন গোস্বামী

উল্লাস উন্নতির সোডামিশ্রিত সন্ত্রাসের সোনালী আসর। ছলনার ছোলাসিদ্ধ চায় না লজ্জার লেবুরস। রসনার রসে তৃতীয় আগুন জ্বেলে নিয়ে শতাব্দির সহ্যশক্তি সহজ উৎসবে মুখ পেল। প্রথম উল্লাসে পেশ ঝাঁঝালো পেয়াজি পক্ষপাত। দ্বিতীয় দহনে দোলে কোল জুড়ে লতানো আশ্রয়। তৃতীয় রাউন্ডে হঠাৎ দোষারোপ পর্ব শুরু হতেই চতুর্থ রাউন্ডে এসে দেখা গেল– সিগারেট শেষ…। অতএব শিবির সুপ্রিমোর নির্দেশে বিস্তারিত…

সেলিম আল দীনের উত্থান-পর্ব । অনুপম হাসান

সেলিম আল দীন (১৯৪৯-২০০৮) বাংলাদেশের নাট্যধারায় অভিনব আঙ্গিক সংযোজন করে স্বীয় স্বাতন্ত্র্যের পরিচয় দিয়েছেন। গবেষক-শিক্ষক ও নাট্যকার সেলিম আল দীন বড় বেশি অকালে মাত্র ৫৯ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন। তাঁর মৃত্যু বাংলাদেশের নাট্যাঙ্গনে যে শূন্যতার সৃষ্টি হলো, তা অপূরণীয়। তিনি ১৯৪৯ সালের ১৮ নভেম্বর ফেনী জেলার সেনেরখিল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর বিস্তারিত…

চন্দন আনোয়ারের গল্প । রাত পোহালে অন্ধকার

ছেলেমেয়ে দুটির খুনসুটিতে বিরক্ত হয়ে অথবা রান্নাঘর থেকে আসা শুকনো মরিচ ভাঁজার তীব্র ঝাঁঝাল গন্ধে টিকতে না পেরে অথবা হতে পারে প্রতিদিনের অভ্যাস মতো গলির মুখের প্রকাশ মুদির দোকানে সিগারেট কেনার জন্য মানুষটা ঘর থেকে বেরিয়েছিল লুঙি পরে গেঞ্জি গায়ে খালি হাতে। বেরিয়ে যাবার সময় সে বলেছিল, আমি আসছি। চাবিসহ তালা ঝুলছে গেটে। খাবার সব বিস্তারিত…

এডগার এ্যালান পো : প্রতীকবাদী ব্যঞ্জনার লেখক

সুমনা মুন : যুক্তরাষ্ট্রের রোমান্টিক সাহিত্য আন্দোলনের অন্যতম অগ্রপথিক এডগার এ্যালান পো। রহস্যময় ও ভয়ের গল্পের জন্য তিনি বেশি পরিচিত। তাকে গোয়েন্দা কাহিনির আবিষ্কারকও বলা হয়। প্রথম দিকের সে সব আমেরিকান লেখকের অন্যতম এ্যালান, যারা লেখালেখিকে পেশা হিসেবে নিয়েছিলেন। ফলশ্রুতিতে পেয়েছেন অর্থনৈতিক দৈন্যদশাগ্রস্ত জীবন। এ্যালান পোর রচনাশৈলী ও প্রতীকবাদী ব্যঞ্জনা পরবর্তীতে অনেককে প্রভাবিত করেছে। এ বিস্তারিত…

আশরাফ জুয়েলের কবিতা

শূন্য মাচান শূন্য মাচানে হামার দোলা দ্যায় নাউ; কে তুমি অ্যাগন্যা ভুল্যা অন্য ঘরে যাও? অ্যাগন্যা কইরা ভাগ– ঝুল্যা আছে দড়ি; খোলস খুইল্যা নাচো পুরানা কিশোরী। বিবাগী মনের পাখি, উড়ে শূন্যে উড়ে; প্রেমিক হারিয়্যা যায়, প্রেমিক বেসুরে। তুমি ছিল্যা, তুমি নাই, জ্যাগ্যাছে যে চর, দেহ কান্দে, প্রাণ কান্দে, কান্দে মৃত ঘর। বুকের আন্ধারে জ্বলে নিভু বিস্তারিত…

শিল্পকলার নতুন যাত্রী ‘একাঘ্নী’

আকাশলীনা ডেস্ক : চলমান সময়ের বখে যাওয়া সময়ের সেবা না করে, নূতন সৃষ্টির প্রয়াসে একাঘ্নীর যাত্রা শুরু। কিন্তু কেনইবা এ প্রচেষ্টা আকাশবার্তার যান্ত্রিক যুগে? বিশ্বায়ন হাওয়া নিচুকে মাটিতে পিষে ফেলে, আর উঁচুকে আকাশে তুলে ধরে। চলে উঁচুতে নিচুতে দ্বন্দ্ব। অন্যদিকে সমগ্র মানবজাতির মধ্যে চলে শুভ-অশুভের যুদ্ধ। আমাদের শরীরে বিলাসিতার ভেতরে আরও একজন বাস করে। তাকে বিস্তারিত…

কোজাগরীর কবিতাগুচ্ছ

গীতা-৪ যাবার দিন রজনীগন্ধায় ভরিয়ে দিও তোমরা। বড় প্রিয় ফুল আমার। আজ কোনো চিনচিনে ব্যথা নেই। খোলা চুলে নেমেছে পৃথিবীর নীরবতা শুধু। এবার সমুদ্রকে ছোঁবো। দেখছো সারথি কত ঘাসফুল ফুটেছে। মৃত্যুও কত রোমান্টিক! লিখে রাখলাম সাত্যকি এক কবি মৃত্যু… অভিমান তপ্ত সম্মোহনে জেগে থাকো মধ্যরাতের সঙ্গমে। নক্ষত্রেরা আকাশের পথে আলোর ব্যঞ্জনা দেয়। কষ্টগুলো শহরের অলিগলি বিস্তারিত…

মাহী ফ্লোরা । পাতাসিরিজ

১. তুমি আসো, দেখে যাও। পড়ে আছে কাচে মানুষের মুখ– ছিন্ন ভিন্ন পাতার বেদনা! ২. পাতাকে বলি, ওহে পতনশীল, লুকোচুরি খেলা কতটা শিখেছো? ৩. দুচোখের চেয়ে শ্রেষ্ঠ পাতার বিন্যাস, আমার দুখী চোখ দেখবে বলে তাকাই– অথচ শুধু চলে যাওয়া দেখি, পড়ে থাকা পাতা, ছিন্ন ভিন্ন চাকাই। ৪. আমাদের এই পাতার জীবনে রহস্যটা শিরায় শিরায়! ৫. বিস্তারিত…

বীরেন মুখার্জীর কবিতা

হাঁটছি আমরা   সকাল হেঁটে যাচ্ছে– কাঁধে কুয়াশাজর্জর শীতবস্ত্র; হাঁটছি আমরা নগরীর বাহুল্যবাগান পেরিয়ে রাত্রি অভিমুখী; নিখিলবিশ্বে নেচে ওঠা সেলফি উৎসব আরও রঙিন দিকে দিকে ছড়িয়ে দিচ্ছে শান্তিতামাশা, সুরক্ষিত ভেতরমহল, রক্তআলোকে উজ্জ্বল! আমরা হাঁটছি, পদশব্দে ভুলফুল; দেখি– শাস্ত্রীয় উঠোন যেন পৃথিবীর সমস্ত আর্তচিৎকার উপমিত হাসি আর মানবভস্মে গম্ভীর! ভেতর-বাহির পোড়াগন্ধ, হাঁটছি আমরা– হেঁটে চলেছে শীতবস্ত্র, বিস্তারিত…

অন্য ভূগোল । বিধান সাহা

এভাবে কাঁদতে নেই, প্রজাপতি! আকাশে অবাক করা রোদ। মেঘমালা। অশান্তির পূর্বাভাষ। ধরো, নদীমাতৃক পৃথিবীতে আমিই একমাত্র ঢেউ। শৈবালের নিকটে আমিই একমাত্র স্রোতস্বিনী ব্যথা। তুমি হাসো। পৃথিবীতে আজ এতো যে ক্লাসিক উৎসব, তুমি জানো, আমার সুর কোথা থেকে ওঠে আর কোথায় মিলায়? এই যে বটগাছ থেকে চলে যাওয়া নিরুদ্দেশের পথ, তুমি জানো কোন ধ্বনি আজ তাবৎ বিস্তারিত…