জানুয়ারি ১৮, ২০১৮ ৩:৫৮ পূর্বাহ্ণ

Home / রাজশাহীর সংবাদ / ফ্লাডলাইট টাওয়ারে চোর, নামালো ফায়ার সার্ভিস

ফ্লাডলাইট টাওয়ারে চোর, নামালো ফায়ার সার্ভিস

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্টেডিয়ামের ফ্লাডলাইটের টাওয়ারে বৈদ্যুতিক তার চুরি করতে উঠেছিলেন নয়ন। বিষয়টি নজরে আসে নৈশ্যপ্রহরীদের। চারদিক থেকে টাওয়ারটি ঘিরে রেখে নয়নকে নেমে আসতে বলেন তারা। কিন্তু নয়ন কোনোভাবেই নামবেন না। তাই খবর খবর দেয়া হয় ফায়ার সার্ভিসকে। অবশেষে তারা নয়নকে টাওয়ার থেকে নামাতে সক্ষম হন।

এরপর নয়নকে তুলে দেয়া হয় পুলিশের হাতে। রাজশাহীর শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান স্টেডিয়ামে এ ঘটনা ঘটে। নয়ন আলী (৩০) নওগাঁর মান্দা উপজেলার খুদিয়াডাঙ্গা গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে। রাজশাহী শহরে তিনি ভাড়া থাকেন। দিনে অটোরিকশা চালালেও রাতে চুরি করে বেড়ান বলে নয়ন পুলিশকে জানিয়েছেন।

স্টেডিয়ামের তত্বাবধায়ক হাসনা বানু বলেন, মাঝে মাঝেই ফ্লাডলাইটের টাওয়ার থেকে বৈদ্যুতিক তার চুরি হয়। দুটি টাওয়ার থেকে এরইমধ্যে তার চুরি হয়ে গেছে। এ নিয়ে সতর্ক অবস্থানে থাকেন নৈশ্যপ্রহরীরা। বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে তারা দেখেন- টাওয়ারের ওপর একজন চোর তার কাটছেন এবং দুজন নিচে দাঁড়িয়ে। এ সময় ধাওয়া দিলে নিচের দুই চোর পালিয়ে যান।

তবে টাওয়ারের ওপরেই বসে থাকেন নয়ন। ওই রাতে তাকে টাওয়ার থেকে নামার জন্য বার বার আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু রাত পেরিয়ে ভোর হয়ে গেলেও নয়ন কোনোভাবেই নামতে রাজি হচ্ছিলেন না। পরে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে খবর দেয়া হয় ফায়ার সার্ভিসে। এরপর তাদের আহ্বানে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নয়ন টাওয়ার থেকে নেমে আসেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের রাজশাহী সদর দপ্তরের সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফরাহদ হোসেন জানান, নিরাপত্তার ভয়ে নয়ন টাওয়ার থেকে নামতে চাইছিলেন না। তার সব ধরনের নিরাপত্তার আশ্বাস দেয়া হলে তিনি নেমে আসেন। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

রাজশাহীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, আটক চোর নয়ন আলীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষ মামলাটি দায়ের করছে।

এসবি/আরআর/এআইআর

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

রাজশাহীতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে জনপ্রিয় করা এবং বিভিন্ন নতুন উদ্ভাবনকে তুলে ধরার লক্ষ্যে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *