ডিসেম্বর ১৩, ২০১৭ ৫:১৭ অপরাহ্ণ

Home / slide / রাবিতে অপহরণের ঘটনায় মামলা

রাবিতে অপহরণের ঘটনায় মামলা

রাবি প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক ছাত্রীকে হলের সামনে থেকে জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর মতিহার থানায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে অপহরণ মামলা দায়ের করেন। মতিহার থানার ওসি মেহেদী হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। মামলায় ওই ছাত্রীর সাবেক স্বামী সোহেল রানাসহ কয়েকজনের নাম উল্লেখ করা হয়।

এদিকে, ওই ছাত্রীর সন্ধান চেয়ে বিকেল ৪টা থেকে উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও কর্মসূচি সন্ধ্যা ৭টার দিকে স্থগিত করেছেন শিক্ষার্থীরা। তবে শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে শনিবার (১৮ নভেম্বর) সকাল ১০টায় ফের কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

এর আগে সকাল ৯টার দিকে পরীক্ষা দেয়ার উদ্দেশ্যে তাপসী রাবেয়া হল থেকে বের হন ওই ছাত্রী। হল থেকে বের হওয়ার পর ৩-৪ জন তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করে। কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে তারা জোর করে ওই ছাত্রীকে সাদা একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। তাদের মধ্যে ওই ছাত্রীর সাবেক স্বামী সোহেল রানাও ছিল বলে সহপাঠিরা দাবি করেন।

পরে বিকেল ৪টার দিকে ওই ছাত্রীর সন্ধান চেয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এতে বামপন্থী সংগঠনগুলো ও ছাত্রলীগ সংহতি জানায়। এসময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জান্নাতুল ফেরদৌস ঘটনাস্থলে এসে শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করেন।

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আবদুস সোবহান বাসভবন থেকে বেরিয়ে আসেন। তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে তাদের আন্দোলন স্থগিত করতে বলেন।

আন্দোলনের এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীর বাবা ও চাচা ঘটনাস্থলে আসেন। তারা উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলার জন্য তার বাসভবনে প্রবেশ করেন। উপাচার্যের সঙ্গে প্রায় আধাঘণ্টা কথা বলে বেরিয়ে এসে প্রশাসনের পদক্ষেপের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করে ওই ছাত্রীর বাবা শিক্ষার্থীদের বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাকে জানিয়েছে তারা সব জায়গায় খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। আমি এখনও জানি না আমার মেয়ে কোন জায়গায়, কী অবস্থায় আছে।

প্রসঙ্গত, আজ শুক্রবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা হলের সামনে থেকে মাইক্রোবাসে ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। ওই ছাত্রী বাংলা বিভাগের স্নাতক (সম্মান) চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি তাপসী রাবেয়া হলের আবাসিক শিক্ষার্থী। তার বাড়ি নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার মাতাজি এলাকার।

এসবি/এসএস

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

কুয়াশায় দুই বাসের সংঘর্ষ, নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঘনকুয়াশার কারণে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটেছে। এতে এক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *