নভেম্বর ২৩, ২০১৭ ১:৩৬ অপরাহ্ণ

Home / বিদেশ / মোদির প্রশংসা করলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি

মোদির প্রশংসা করলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসা করে সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি বলেছেন, উনি অসম্ভব পরিশ্রমী। লক্ষ্য স্থির রেখে তা পূরণ করার অদম্য এক বাসনা তাঁর মধ্যে রয়েছে। তাঁর দৃষ্টিশক্তিও খুব স্বচ্ছ। সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেছেন, চাহিদা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর এক স্পষ্ট ধারণা রয়েছে। কঠিন পরিশ্রমের মধ্য দিয়ে কীভাবে তা হাসিল করা যায়, সেটাও তাঁর জানা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আজ মঙ্গলবার প্রণব মুখার্জি এ কথা বলেন। নরেন্দ্র মোদির ভূয়সী প্রশংসা করলেও এই সাক্ষাৎকারে প্রণব বাবু বুঝিয়ে দেন, প্রধানমন্ত্রীর কংগ্রেসমুক্ত ভারত গড়ার ডাক নিয়ে তিনি ভিন্নমত পোষণ করেন।

কংগ্রেস মনোনীত রাষ্ট্রপতি হলেও প্রণব মুখার্জি সম্পর্কে নরেন্দ্র মোদি সব সময় শ্রদ্ধাবনত। গত জুলাই মাসে প্রণব মুখার্জির লেখা বই প্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে থিতু হওয়ার সময় প্রতি মুহূর্তে প্রণব বাবুর পরামর্শ নিয়েছি। আমি ভাগ্যবান, তাঁর সাহচর্য পেয়েছিলাম বলে।

সেই মোদি সম্পর্কে প্রণব বাবুও প্রশংসার ঝুলি উজাড় করে দিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের আগে উনি প্রস্তাব দেন সার্ক সদস্যদেশগুলোর প্রধানদের তিনি আমন্ত্রণ জানাতে চান। প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক উন্নতিতে তাঁর আগ্রহ যে কতটা ছিল, তা ওই প্রস্তাবের মধ্য দিয়েই বোঝা গিয়েছিল। অভূতপূর্ব প্রস্তাবটি গ্রহণ করতে আমার মনে বিন্দুমাত্র দ্বিধা ছিল না।

রাজনীতিগত দিক দিয়ে দুজনে দুই মেরুর বাসিন্দা। কিন্তু তা সত্ত্বেও রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির সঙ্গে কাজ করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কখনো অসুবিধা হয়নি। রাজনৈতিক এই ভিন্নতা সত্ত্বেও দুজনের প্রতি দুজনের ভরসা ও বিশ্বাসের কথা দুজনেই একাধিকবার স্বীকার করেছেন। রাষ্ট্রপতির বিদায়ী ভাষণে প্রণব বাবু বলেছিলেন, আবেগ, তাড়না ও অফুরন্ত জীবনীশক্তি নিয়ে মোদি দেশে পরিবর্তন আনার কাজে নেমেছেন। বিদায় মুহূর্তে নরেন্দ্র মোদি তাঁকে যে চিঠি লিখেছিলেন, তা তাঁর হৃদয় ছুঁয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেছিলেন বিদায়ী রাষ্ট্রপতি।

এত প্রশংসা সত্ত্বেও প্রণব বাবু কিন্তু ভিন্নমত পোষণ করতে দ্বিধান্বিত হননি। এনডিটিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি স্পষ্ট বুঝিয়ে দেন, কংগ্রেসমুক্ত ভারত গড়ার যে ডাক মোদি দিয়েছেন, তার সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে তিনি সহমত নন। সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রে কোনো রাজনৈতিক দলকে নিঃশেষ করা যায় না। তিনি বলেন, প্রতিটি দলই টিকে থাকার আশা নিয়ে আসে। আদর্শ, নীতি, ক্ষমতা ও জনতার চাহিদা অনুযায়ী তাদের ভূমিকা পালন করে।

এসবি/এসএস

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

এক মোটরসাইকেলে ৫৮ জন!

সাহেব-বাজার ডেস্ক : একটি মোটরসাইকেলে ৫৮ জন। ভাবছেন এতোজন কিভাবে চড়লো, কিন্তু চমকের এখানেই শেষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *