ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭ ৩:৩৭ পূর্বাহ্ণ

Home / slide / নতুন ভ্যাট আইন মূল্যস্ফীতি বাড়াতে পারে

নতুন ভ্যাট আইন মূল্যস্ফীতি বাড়াতে পারে

সাহেব-বাজার ডেস্ক : নতুন মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাট আইনের কারণে মূল্যস্ফীতি বাড়তে পারে বলে মনে করে বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। সিপিডির মতে, সরবরাহ পর্যায়ে বিদ্যুৎ, গ্যাস, ইন্টারনেট-সেবা, রেস্তোরাঁ, ব্র্যান্ডের পোশাক কিনতে খরচ বাড়তে পারে। আমদানি পর্যায়ে জ্বালানি তেল, সৌরবিদ্যুৎ প্যানেলের আমদানি ব্যয় বাড়বে; যা ভোক্তার ওপর পড়বে। এ ছাড়া আমদানি ও সরবরাহ পর্যায়ে সাবান, টুথপেস্ট, বোতলজাত পানি, হলুদ, মরিচ, আসবাব, লোহাজাতীয় পণ্যের দাম বাড়তে পারে।

আজ রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত বাজেট নিয়ে সংলাপে সিপিডির মূল প্রবন্ধে এ কথা বলা হয়। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ফাহমিদা খাতুন। সংলাপে সভাপতিত্ব করেন সিপিডির চেয়ারম্যান রেহমান সোবহান।

রেহমান সোবহান বাজেট সম্পর্কে বলেন, বাজেট কত বড়, বাস্তবায়ন কতটা হলো—এসব সংখ্যাতাত্ত্বিক অনুশীলন ছাড়া আর কিছুই নয়। বাজেট থেকে মানুষ কতটা সুবিধা পেল, সেটাই বড় কথা। শিক্ষা, স্বাস্থ্য খাতে যে বাজেট বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে, এর সুবিধা সবার কাছে পৌঁছাচ্ছে কি না, তা দেখতে হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘আগামী পাঁচ বছরে এক কোটি মানুষ শ্রমবাজারে আসবে, ওই সময়ে আমরা এক কোটি মানুষের কর্মসংস্থান করব।’ তিনি আরও বলেন, বাজেট প্রস্তাবগুলো নিয়ে সংসদে আলোচনা হচ্ছে। সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, এমন কিছু বাজেটে থাকবে না। দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই।

সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ও বিএনপি নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকার মানবসম্পদে বিনিয়োগ না করে মেগা প্রকল্পে বিনিয়োগ করছে। মেগা প্রকল্পে বিনিয়োগের সুবিধা হলো ৮ হাজার কোটি টাকা পদ্মা সেতু ২৮ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হতে পারে। এটি শুধু সরকারি অর্থের অপচয় নয়; দুর্নীতিকেও উৎসাহিত করে।
অর্থনীতিতে তিন ধরনের সমস্যা আছে বলে মনে করেন সিপিডির বিশেষ ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য। ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের উদ্ধৃতি একটি উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি এখন একটি ইঞ্জিন দিয়ে উড়োজাহাজ চলার মতো অবস্থায় আছে। সরকারি বিনিয়োগনির্ভর প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। ব্যক্তি খাতের বিনিয়োগ বাড়ছে না।

নতুন মূসক আইন সম্পর্কে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অর্থ উপদেষ্টা আকবর আলি খান বলেন, ভ্যাট হলো অত্যন্ত হিসাবনির্ভর ব্যবস্থা। কিন্তু বাংলাদেশের অনেক কারখানা অশিক্ষিত লোকদের মাধ্যমে পরিচালিত হয়। তাঁদের ভ্যাটের হিসাব রাখার সক্ষমতা নেই।
আকবর আলি খান বলেন, নিয়মানুযায়ী আবগারি শুল্ক থাকলে ভ্যাট থাকবে না। বাংলাদেশে দুটোই আছে। সরকার আবগারি শুল্ক উঠিয়ে দিয়ে ব্যাংক সেবার ওপর ভ্যাট বসাতে পারে।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সিপিডির বিশেষ ফেলো মোস্তাফিজুর রহমান। এ ছাড়া বক্তব্য দেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন, বিলুপ্ত বেসরকারীকরণ কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী, ঢাকা চেম্বারের সাবেক সভাপতি আসিফ ইব্রাহিম, মেঘনা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুল আমিন, গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী, সুশাসনের জন্য নাগরিকের সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার, এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবদুল মজিদ প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেই

সাহেব-বাজার ডেস্ক : চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *