অক্টোবর ২২, ২০১৭ ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

Home / slide / চাঁদে আলু চাষ!

চাঁদে আলু চাষ!

সাহেব-বাজার ডেস্ক : চাঁদের মাটিতে আলু চাষের পদক্ষেপ নিচ্ছেন চীনের বিজ্ঞানীরা। আসন্ন চন্দ্র অভিযানের অংশ হিসেবেই তাঁরা এই পদক্ষেপের প্রস্তুতিও নিয়ে ফেলেছেন।

চংকিং মর্নিং পোস্টের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী বছরই চ্যাং’ই-ফোর নামে চাঁদে অভিযান চালাবে চীনা জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। সে সময়ই ছোট সিলিন্ডারের মধ্যে আলু সিল করে পাঠানো হবে। সিলিন্ডারের ভেতরে ‘মিনি ইকোসিস্টেম’ ব্যবস্থা থাকবে। সেখানে গুটিপোকার লার্ভাও পাঠানো হবে।

এই প্রকল্পের প্রধান নকশাকার ও চংকিং ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক জি জেংজিন বলেন, চাঁদের মাটিতে আলু চাষের আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হবে। এ জন্য আগে সেখানে কীটপতঙ্গ পাঠানো হবে।

চায়না রেডিও ইন্টারন্যাশনাল বলছে, চাঁদের জমিতে আলুর চারা বেঁচে থাকবে কি না, তা নিশ্চিত হতেই বিজ্ঞানীরা চাঁদে কীটপতঙ্গ পাঠানোর পরিকল্পনা করছেন।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিনি ইকোসিস্টেম ক্যাপসুলটির ওজন হবে তিন কেজি। এর দৈর্ঘ্য ১৮ সেন্টিমিটার ও প্রস্থ ১৬ সেন্টিমিটার। সিলিন্ডারে লার্ভা থেকে ডিম ফোটা মাত্রই কার্বন তৈরি হবে। আর আলুর চারা থেকে বেরোবে অক্সিজেন। এভাবে মিনি ইকোসিস্টেম ক্যাপসুলের ভেতর কার্বন ও অক্সিজেনের আদান-প্রদান চলবে। আলু চাষের এই পুরো প্রক্রিয়া বিজ্ঞানীরা লাইভ সম্প্রচার করার কথাও ভাবছেন।

জি জেংজিন বলেন, ‘আমরা আশাবাদী, পরিবেশ নিয়ে এটা সচেতনতা সৃষ্টি করবে এবং মহাকাশ সম্পর্কে মানুষের আগ্রহ বাড়বে।’

পৃথিবীর বাইরে ফসল ফলানোর প্রচেষ্টা এটাই প্রথম নয়। এর আগে গত মার্চ মাসে পেরুর ইন্টারন্যাশনাল পটেটো সেন্টার (সিআইপি) নাসার অ্যামেস রিসার্চ সেন্টারের সঙ্গে মঙ্গলগ্রহে যৌথভাবে আলুর চাষ করা যাবে কি না, তা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছে। এ ছাড়া ২০১৬ সালের অক্টোবরে নাসার বিজ্ঞানীরা জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের জন্য ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনে সফলভাবে লেটুসপাতার চাষ করেছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

হোয়াইটওয়াশ ঠেকাতে দুপুরে মাছে নামছে টাইগাররা

সাহেব-বাজার ডেস্ক : তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুটিতে হেরে হোয়াইটওয়াশ লজ্জার মুখোমুখি টাইগাররা। রোববার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *