Ad Space

তাৎক্ষণিক

অবশেষে জামিন পেলেন জেলা ছাত্রলীগ নেতা মেরাজ

ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা : আদম ব্যবসার ঘটনাকে কেন্দ্র করে খালুর সাথে সম্পৃক্ত একটি প্রতারণা মামলা থেকে অবশেষে জামিন পেলেন রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেরাজুল ইসলাম মেরাজ। বুধবার গোপালগঞ্জ আদালত থেকে তিনি জামিন নেন।

বাঘা থানা পুলিশ জানায়, আদম ব্যবসা নিয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেরাজুল ইসলাম ও তার খালু নওশাদ আলীর নামে মামলা করেন গোপালগঞ্জের এক ব্যক্তি। যার মামলা নম্বর-৪১৭/১৬। ওই প্রতারণা মামলায় গোপালগঞ্জের আমলি আদালত গত বছরের ১০ অক্টোবর তাদের দুইজনের নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। কিন্তু সেই গ্রেফতারি পরোয়ানাটি বাঘা থানায় আসতে বিলম্ব হয়। এ কারণে আইনি জটিলতায় তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়না। কিন্তু স্থানীয়ভাবে মেরাজ পৌর মেয়রের ভাগ্নে হওয়ার সুবাদে বিষয়টি জানাজানি হয় এবং বিতর্কের ঝড় উঠে। সর্বশেষ বুধবার দুপুরে গোপালগঞ্জ আদালত থেকে মেরাজ জামিন নিয়ে রিকল জমা দেন।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক  মেরাজুল ইসলাম জানান, মাত্র ৭ লাখ ৬০ হাজার টাকার একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষরা তাঁর খালু নওশাদ আলীর নামে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আর ওই ঘটনায় তিনি খালুর পক্ষে জামিনদার হওয়ার তাঁকেও সম্পৃক্ত করা হয়। মুলত তিনি প্রতারণার সাথে জড়িত নন।