Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ভিডিও কনফারেন্স– বিস্তারিত....
  • তানোরের আলু বিদেশে রপ্তানী, কৃষকের মুখে খুশির ঝিলিক– বিস্তারিত....
  • নাটোরে টিভি রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন– বিস্তারিত....
  • কলেজে ছাত্রীকে বখাটে সহপাঠির প্রকাশ্যে চড়– বিস্তারিত....
  • চারঘাটে বিভিন্ন পয়েন্ট নিয়ন্ত্রন করে ৩০ চোরাকারবারী গডফাদার– বিস্তারিত....

রিকশাচালকের কাছে মিলল মিতুর সিম

ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক : পুলিশের সাবেক এসপি বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতুর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের সিমটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার বিকালে ভোলার লালমোহন এলাকার এক রিকশাচালকের কাছ থেকে সিমটি পাওয়া যায় বলে নিশ্চিত করেছেন মিতু হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিএমপির পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা) কামরুজ্জামান।

কামরুজ্জামান বলেন, ‘মোবাইলে কথা বলে আমরা ভোলার লালমোহনে একটি চরে বসবাসকারী রিকশাচালকের কাছ থেকে মিতুর সিমটি পেয়েছি। এই দরিদ্র লোকটি মিতু হত্যাকাণ্ডের সময় চট্টগ্রাম শহরে রিকশা চালাত বলে জানিয়েছেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে হত্যাকাণ্ডের সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। তিনি বলেছেন সিমটি তিনি পথে কুড়িয়ে পেয়েছেন। তার কথাবার্তায় কোনো সন্দেহ না হওয়ায় তাকে আটক করা হয়নি।’

গত বছরের ৫ জুন সকালে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাবার পথে মহানগরীর জিইসি মোড় এলাকায় দুর্বৃত্তদের গুলি ও ছুরিকাঘাতে এসপি বাবুলের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু খুন হন। ঘটনার পর মিতুর স্বামী বাবুল আক্তার বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় তিনজনের নামে পাঁচলাইশ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে পুলিশ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রটি উদ্ধারের পর এ ঘটনায় ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এহতেশামুল হক ভোলা ও রিকশাচালক মনির হোসেনকে আসামি করে বাকলিয়া থানায় অস্ত্র আইনে আরেকটি মামলা করে পুলিশ।

সন্দেহভাজন বেশ কয়েকজনকে আটক করা হলেও গত ৯ মাসে এ হত্যাকাণ্ডের কোনো রহস্য উৎঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।