Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • চার মাসেও শনাক্ত হয়নি লিপুর ঘাতকরা– বিস্তারিত....
  • মশার প্রকোপে অতিষ্ঠ রাবি শিক্ষার্থীরা– বিস্তারিত....
  • শিশু মেঘলা ও মালিহার হত্যাকান্ডের বিচারের দাবীতে মানবন্ধন– বিস্তারিত....
  • উপজেলা চেয়ারম্যানদের মূল্যায়নের অঙ্গীকার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের– বিস্তারিত....
  • নাটোরে হয়রানীমূলক মামলা থেকে কলেজ ছাত্র জামিনে মুক্ত– বিস্তারিত....

‘যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড’

ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক : যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তিদের আমৃত্যু কারাগারে থাকতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আপিল বিভাগ। ১৪ ফেব্রুয়ারি (মঙ্গলবার) গাজীপুরের একটি হত্যা মামলার শুনানিকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই মন্তব্য করেন।

বেঞ্চের অপর তিনজন হলেন বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার।

এ বিষয়ে ওই হত্যা মামলার আসামিপক্ষের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন জানান, দণ্ডবিধি অনুযায়ী, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড মানে ৩০ বছর কারাগারে থাকতে হবে। কিন্তু আজ প্রধান বিচারপতি বলেছেন, যাবজ্জীবন মানে, ‘ন্যাচারাল লাইফ ডেথ’ । পূর্ণাঙ্গ রায় পেলে এ বিষয়ে জানা যাবে।

মাহবুব হোসেন আরো জানান, মামলার শুনানিকালে আসামিদের মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন করতে আবেদন করলে আদালত বলেন, ‘যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড’।

এ বিষয়ে আইনি যুক্তি জানাতে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, হত্যা মামলার শুনানিকালে আদালত এই মন্তব্য করেছেন। তবে রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি পাওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০০১ সালে গাজীপুরে জামান নামের এক ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় পরের দিন নিহতের বাবা সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে গাজীপুর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। পরে গাজীপুর বিচারিক আদালত  ২০০৩ সালে তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দেন। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে দুজন আনোয়ার হোসেন ও আতাউর রহমান আপিল করেন। পরে হাইকোর্ট তাঁদের মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন।

হাইকোটের এ রায়ের বিরুদ্ধে আসামিরা আপিল করলে আজ শুনানি শেষে রায়ের জন্য বিষয়টি অপেক্ষমাণ রাখা হয়।