Ad Space

তাৎক্ষণিক

১৩ বছর পরেই বিশ্বের ২৮তম অর্থনৈতিক শক্তি হবে বাংলাদেশ

ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রফেশনাল সার্ভিস ফার্মগুলোর একটি পিডব্লিউসি। সম্প্রতি এই প্রতিষ্ঠানটি ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালি অর্থনীতির দেশ হবে যে ৩২টি দেশ সে সম্পর্কে একটি পূর্বানুমানমূলক তালিকা প্রকাশ করেছে।

তাদের প্রতিবেদনটির শিরোনাম ছিল, “দ্য লং ভিউ: হাউ উইল দ্য গ্লোবাল ইকোনমিক অর্ডার চেঞ্জ বাই ২০৫০”। এতে ২০৩০ সালের মধ্যে ৩২টি দেশের সম্ভাব্য জিডিপির ভিত্তিতে র‌্যাঙ্কিং করা হয়। এছাড়া দেশগুলোর ক্রয়শক্তি ক্ষমতা সমতা (পিপিপি)-ও বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে এই তালিকা তৈরিতে।

পিডব্লিউসি’র গবেষণায় দেখা গেছে, ইতিমধ্যেই শক্তিশালি অর্থনীতির দেশ হিসেবে আবির্ভুত হওয়া কয়েকটি দেশ আগামি ১৩ বছর ধরেই এই তালিকার শীর্ষে থাকবে। পাশাপাশি কিছু দেশ এই তালিকা থেকে বেরিয়ে যাবে এবং তাদের জায়গায় প্রবেশ করবে আরো কিছু নতুন দেশ।

আসুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক ২০৩০ সালের মধ্যে কোনো দেশগুলো বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালি অর্থনীতির দেশ হিসেবে আবির্ভুত হবে-

৩২. নেদারল্যান্ডস- ১,০৮০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (পিপিপি)
৩১. কলম্বিয়া- ১,১১১ বিলিয়ন
৩০. দক্ষিণ আফ্রিকা- ১,১৪৮ বিলিয়ন
২৯. ভিয়েতনাম- ১,৩০৩ বিলিয়ন
২৮. বাংলাদেশ- ১,৩২৪ বিলিয়ন
২৭. আর্জেন্টিনা- ১,৩৪২ বিলিয়ন
২৬. পোল্যান্ড- ১,৫০৫ বিলিয়ন
২৫. মালয়েশিয়া- ১,৫০৬ বিলিয়ন
২৪. ফিলিপাইন- ১,৬১৫ বিলিয়ন
২৩. অস্ট্রেলিয়া- ১,৬৬৩ বিলিয়ন
২২. থাইল্যান্ড- ১,৭৩২ বিলিয়ন
২১. নাইজেরিয়া- ১,৭৯৪ বিলিয়ন
২০. পাকিস্তান- ১,৮৮৬ বিলিয়ন
১৯. মিশর- ২,০৪৯ বিলিয়ন
১৮. কানাডা- ২,১৪১ বিলিয়ন
১৭. স্পেন- ২,১৫৯ বিলিয়ন
১৬. ইরান- ২,৩৫৪ বিলিয়ন
১৫. ইটালি- ২,৫৪১ বিলিয়ন
১৪. দক্ষিণ কোরিয়া- ২,৬৫১ বিলিয়ন
১৩. সৌদি আরব- ২,৭৫৫ বিলিয়ন
১২. তুরস্ক- ২,৯৯৬ বিলিয়ন
১১. ফ্রান্স- ৩,৩৭৭ বিলিয়ন
১০. যুক্তরাজ্য- ৩,৬৩৮ বিলিয়ন
৯. মেক্সিকো- ৩,৬৬১ বিলিয়ন
৮. ব্রাজিল- ৪,৪৩৯ বিলিয়ন
৭. জার্মানি- ৪,৭০৭ বিলিয়ন
৬. রাশিয়া- ৪,৭৩৬ বিলিয়ন
৫. ইন্দোনেশিয়া- ৫, ৪২৪ বিলিয়ন
৪. জাপান- ৫,৬০৬ বিলিয়ন
৩. ভারত- ১৯,৫১১ বিলিয়ন
২. আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্র- ২৩,৪৭৫ বিলিয়ন
১. চীন- ৩৮,০০৮ বিলিয়ন