Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • বিভিন্ন দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি প্রদান করেছে ইয়্যাস নেতৃবৃন্দ– বিস্তারিত....
  • কর্মচারীদের নির্বাচনে দুই কর্মকর্তার প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ– বিস্তারিত....
  • রাজশাহী বিভাগে এক হচ্ছে রবি-এয়ারটেল নেটওয়ার্ক– বিস্তারিত....
  • রমজানে চাহিদা পুরণ করছে বাঘার মুড়ি– বিস্তারিত....
  • গুজবে বরখাস্ত দুই স্কুল শিক্ষক!– বিস্তারিত....

নাটোরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে বরের পলায়ন

ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৭

নাটোর প্রতিনিধি : নাবালিকা কনের বাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে বরসহ বরযাত্রীরা পালিয়ে গেছে। শুক্রবার দুপুরে নাটোর সদর উপজেলার দত্তপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পরে আদালতের পরামর্শে বরযাত্রীদের জন্য রান্না করা খাবার স্থানীয় একটি এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

সদর সহকারি কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, এলাকাবাসীর মারফত খবর পেয়ে সহকারি কমিশনার ও নির্বাহি হাকিম ফারজানা খানমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত শুক্রবার দুপুর ২টায় দত্তপাড়া এলাকার একটি বিয়ের বাড়িতে যান। সেখানে ষষ্ঠ শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীর বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছিল। এ সময় আদালত বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন। তিনি মেয়েটির অভিভাবক ও স্থানীয় ইউপি সদস্যের কাছ থেকে এই বিয়ে বন্ধ থাকবে মর্মে অঙ্গীকার নামা নেন। ঠিক তখনই বরপক্ষ বরযাত্রী নিয়ে কনের বাড়িতে আসছিলেন। খবর পেয়ে তাঁরা বিয়ের বাড়িতে না ঢুকে বনপাড়া এলাকায় নিজেদের বাড়িতে ফিরে যান।

নির্বাহী হাকিম ফারজানা খানম বিয়ে বন্ধ করার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সাবালিকা না হওয়া পর্যন্ত অভিভাবকরা মেয়েটিকে বিয়ে দিবেন না বলে অঙ্গীকারনামা দিয়েছেন। পরে তিনি বরযাত্রীদের জন্য রান্না করা খাবার দিঘাপতিয়া বালিকা শিশু সদনে বিতরণ করার পরামর্শ দেন। তাঁর পরামর্শে সেখানে খাবার পৌঁছে দেওয়া হয়।