Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সঙ্গে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ভিডিও কনফারেন্স– বিস্তারিত....
  • তানোরের আলু বিদেশে রপ্তানী, কৃষকের মুখে খুশির ঝিলিক– বিস্তারিত....
  • নাটোরে টিভি রিপোর্টার্স ইউনিটির কমিটি গঠন– বিস্তারিত....
  • কলেজে ছাত্রীকে বখাটে সহপাঠির প্রকাশ্যে চড়– বিস্তারিত....
  • চারঘাটে বিভিন্ন পয়েন্ট নিয়ন্ত্রন করে ৩০ চোরাকারবারী গডফাদার– বিস্তারিত....

রামেকে ২২ঘণ্টা অঘোষিত কর্মবিরতির পর কাজে ফিরলেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা

ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে টানা ২২ ঘণ্টা অঘোষিত কর্মবিরতি পালন করার পর কাজে ফিরেছেন ইন্টার্নি চিকিৎসকরা। বুধবার সকাল ১০টার দিকে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএসএম রফিকুল ইসলামের সঙ্গে আলোচনা শেষে বুধবার দুপুর ২টা থেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কাজে ফেরার সিদ্ধান্ত নেয়।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে রামেক হাসপাতালে রোগির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে স্বজনদের সাথে হাতাহাতির ঘটনায় অঘোষিতভাবে কর্মবিরতিতে যান ইন্টার্ন চিকিৎসতকরা।

মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর সাধুরমোড়ের রাণীনগর এলাকার চান সরদারের ছেলে শাহীন (৩৫) রামেক হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। রোগির স্বজনদের দাবি দায়িত্বে অবহেলা এবং সুচিকিৎসা না হওয়ায় শাহীনের মৃত্যু হয়। দায়িত্বে অবহেলার কথা নিয়ে ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইন্টার্ন ডাক্তার মাহফুজুর রহমানের সাথে মৃত’র স্বজনদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এরপর থেকেই ইন্টার্নি চিকিৎসকরা কর্মবিরতিতে যান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ইন্টার্নি চিকিৎসক জানান, ইন্টার্নি চিকিৎসকরা কাজে আসতে ভয় পাচ্ছেন। সে কারণে তারা কাজে যোগ দেন নি।

এদিকে এঘটনার পরে রানীনগর এলাকার সাইদুর রহমানের ছেলে সিথিল (২৫) এবং আহমদ আলীর ছেলে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা আবু বকরকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া যাওয়া হয়েছে। তবে, পরে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজপাড়া পুলিশ।

এ বিষয়ে রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সারোয়ার জাহান জানান, নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির জন্য এ ঘটনা ঘটেছে। আলোচনার পরে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা কাজে ফিরেছেন। তাদের নিরাপত্তার দাবি ছিলো। সেটি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।