নভেম্বর ২৪, ২০১৭ ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ

Home / slide / মিয়ানমার বাহিনী রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ করেছে : এইচআরডব্লিউ

মিয়ানমার বাহিনী রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ করেছে : এইচআরডব্লিউ

সাহেব-বাজার ডেস্ক : মিয়ানমারের সরকারি বাহিনী কর্তৃক দেশটির রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা নারী ও মেয়েরা ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে প্রতিবেদন দিয়েছে নিউইয়র্কভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। গত বছর রাখাইনে সরকারি বাহিনীর অভিযানকালে এসব অপরাধ সংঘটিত হয় বলে সংগঠনটি জানায়। সোমবার এক প্রতিবেদনে এইচআরডব্লিউ এ তথ্য জানিয়েছে।

ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বর্ডার গার্ড পুলিশের সদস্যরা গোষ্ঠীবদ্ধভাবে হামলা চালিয়েছেন। বন্দুকের নলের মুখেও ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে, এইচআরডব্লিউর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছরের ৯ অক্টোবর থেকে মধ্য ডিসেম্বর পর্যন্ত রাখাইনের মংডু জেলার অন্তত নয়টি গ্রামে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বর্ডার গার্ড পুলিশের সদস্যরা ধর্ষণ, গণধর্ষণ, আগ্রাসীভাবে দেহ তল্লাশি ও যৌন হামলায় অংশ নেন।

এইচআরডব্লিউ বলছে, রাখাইনে নৃতত্ত্ব ও ধর্মের ভিত্তিতে রোহিঙ্গাদের ওপর পদ্ধতিগত হামলা হয়েছে বলে নতুন প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিদের বিবরণে উঠে এসেছে।

রাখাইনে সংঘটিত সহিংসতা পদ্ধতিগত ধর্ষণের অভিযোগের বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে একটি স্বাধীন, আন্তর্জাতিক তদন্ত অনুমোদন করতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে এইচআরডব্লিউ।

সংগঠনটির জ্যেষ্ঠ গবেষক প্রিয়াঙ্কা মোটাপার্থ বলেন, “নারীদের বিরুদ্ধে যৌন সহিংসতা চালানোর বিষয়ে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর দীর্ঘ ও বিকৃত ইতিহাস আছে। রাখাইনে রোহিঙ্গা নারী ও মেয়েদের বিরুদ্ধে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর চালানো লোমহর্ষক হামলা বর্বরতার নতুন অধ্যায় যুক্ত করেছে। এসব অপরাধ বন্ধ বা জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি দিতে সামরিক ও পুলিশ কমান্ডাররা যদি সবটা না করে থাকেন, তবে তাদের আইনগতভাবে দায়ী করা উচিৎ।

রোহিঙ্গারা সম্ভবত মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার

মানবাধিকার সংগঠনটি বলছে, নিপীড়নের মুখে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়া ১৮ জন রোহিঙ্গা নারীর সাক্ষাৎকার নিয়েছেন এইচআরডব্লিউর গবেষকেরা। গত বছরের ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের জানুয়ারির মধ্যে এই সাক্ষাৎকার নেয়া হয়। এই নারীদের মধ্যে ১১ জনই রাখাইনে যৌন হামলার শিকার হওয়ার কথা জানিয়েছেন। ১৭ জন নারী ও পুরুষ তাদের কাছে পরিজনের যৌন সহিংসতা শিকার হতে দেখেছেন। এ ১৭ জনের মধ্যে আবার যৌন সহিংসতার শিকার হওয়া কয়েকজন নারীও আছেন। সব মিলিয়ে সংগঠনটি ২৮টি ধর্ষণ ও অন্যান্য যৌন সহিংসতার ঘটনা নথিভুক্ত করেছে।

এইচআরডব্লিউ বলছে, রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংস অভিযানের মুখে ৬৯ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

গ্যাস সরবরাহ না থাকায় রাজশাহীর চারটি বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ

সাহেব-বাজার ডেস্ক : গ্যাস সরবরাহ না থাকায় রাজশাহী বিভাগের সরকারি মালিকানার চারটি বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ হয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *