Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাবির আবাসিক হলে এইচএসসির অমুল্যায়িত খাতা!– বিস্তারিত....
  • জাতীয় পার্টি রাজনীতিতে বড় ফ্যাক্টর : এরশাদ– বিস্তারিত....
  • নাটোরে বৈশাখী মেলায় প্রকাশ্যে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য– বিস্তারিত....
  • প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে নগরীতে প্রকৃতি বন্ধন– বিস্তারিত....
  • রাবি শিক্ষার্থীকে মারধরকারী যুবলীগ নেতার শাস্তি দাবি– বিস্তারিত....

নাটোরে জনসেবা হাসপাতালে রোগীর কিডনী চুরির অভিযোগ

ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৭

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের জনসেবা হাসপাতালে রোগীর কিডনী চুরির অভিযোগে হাসপাতালের চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। এসময় হাসপাতালের পরিচালক ও স্টার্ফ পলাতক রয়েছে। শুক্রবার দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে শহরের মাদ্রাসা মোড় এলাকার জনসেবা হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটে। আটককৃত চিকিৎসক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারী সার্জন ডা:এম এ হান্নান।

নাটোর সদর থানার উপ-পরিদর্শক মাসুদ রানা ও রোগীর স্বজন জানান, গত প্রায় এক বছর আট মাস আগে নাটোরের সিংড়া উপজেলার ছোট চৌগ্রাম গ্রামের ফজলু বিশ্বাসের স্ত্রী আসমা বেগম পেটের ব্যাথায় জনসেবা হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে সেখানে তার পিত্ত থলিতে পাথরের কথা বলে অপারেশন করতে হবে বলে জানায়।

এর প্রায় এক মাস পর রোগীর অপারেশনের দিন করে রোগীর অপারেশন করা হয়। অপারেশনের সময় রোগীর আরো একটি অপারেশন করতে হবে বলে আরো একটি অপারেশন করেন চিকিৎসক। এর পর থেকে রোগী আরো অসুস্থ্য হয়ে পরলে পুনরায় রোগীর পরিক্ষা করা হয় ওই হাসপাতালেই। সেখান থেকে জানতে পারে রোগীর শরীরের ডান পার্শের একটি কিডনী নেই। এর পর থেকে রোগীর স্বজন বিভিন্ন হাসপাতালে রোগীর পরিক্ষা করে জানতে পারে তার শরিরের একটি কিডনী নেই। বিষয়টি জনসেবা হাসপাতাল কতৃপক্ষকে জানালে তারা তাল বাহানা করতে থাকে।

এরই জের ধরে শুক্রবার দুপুরে রোগীর স্বজনরা হাসপাতালে গেলে হাসপালের পরিচালক ডা: আমিরুল ইসলাম সহ বেশ কয়েকজন স্টার্ফ সটকে পড়ে। পরে রোগীর স্বজন পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হাসপাতালের চিকিৎসক এম এ হান্নানকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে যায়।