আগস্ট ২১, ২০১৭ ১:১১ পূর্বাহ্ণ
Home / slide / রাজশাহীতে পুষ্পমেলা শুরু, প্রথম দিনেই উপচে পড়া ভীড়

রাজশাহীতে পুষ্পমেলা শুরু, প্রথম দিনেই উপচে পড়া ভীড়

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফুল মানেই মনমাতানো রঙ। আর হাজারো ফুল এক সঙ্গে পাওয়া, সত্যিই সেতো মেলা। এমন মেলা চলছে রাজশাহীতে। শুক্রবার সকালে ‘ওয়ান ব্যাংক পুষ্পমেলা’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নগর পুলিশ প্রধান।

আয়োজক সংগঠন বৈকালী সংঘের সভাপতি এওয়াই এম মনিরুজ্জামান ছানার সভাপতিত্বে উদ্বোধনীতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম ফকরুল আলম, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়াকার হাসান।

উদ্বোধনীতে নগর পুলিশ কমিশনার বলেন, ফুল বিশুদ্ধতা আর প্রবিত্রতার প্রতিক। ফুল মন প্রফুল্লর করে, মনকে সতেজ রাখে। সবার উচিত গাছ লাগানো, বিশেষ করে ফুলগাছ। এতে সৌন্দর্য্য বাড়বে। ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য নিশ্চিত হবে সুন্দর পরিবেশ। বাড়বে সামাজিক সম্প্রীতি।

নগরীর সিএন্ডবি মোড় জেলা পরিষদ মিলনায়তন চত্বরে এরই মধ্যে জমে উঠেছে তিন দিনব্যাপী এ মেলা। সকাল থেকেই মেলায় ঢল মেনেছে দর্শনার্থীদের। ছেলে-বুড়ো, নারী-পুরুষ নির্বিশেষে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এসেছেন মেলায়। নয়ন জুড়ানো ফুলে মুগ্ধ সবাই। কেউ কেউ কিনেও নিয়ে যাচ্ছেন বাহারি ফুলের চারা।

Rajshahi Flower Fair Photo-4

বাহারি গোলাপ, ডালিয়া, স্নোবল ও চন্দ্রমল্লিকায় ভরপুর স্টল। শোভা পাচ্ছে রজনী গন্ধা, সাদা পাঁপড়ি, গাঁদা ও সূর্যমুখীও। থরে থরে সাজানো হরেক জাতের ক্যাকটাস-বাগান বিলাস। রয়েছে মন মাতানো বিদেশী অনেক ফুলও।

সব মিলিয়ে ১৪টি স্টল রয়েছে এখানে। প্রতিটিতেই শোভা পাচ্ছে রঙ বেরঙয়ের ফুল। স্টল মালিকরা জানিয়েছেন, কেবলই বিক্রি নয়, নগরবাসীকে বাহারী ফুলের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতেই আসেন তারা। তবে বেচাবিক্রিও বেশ ভালো।

বৈকালী সংঘের সভাপতি এওয়াই এম মনিরুজ্জামান জানান, ফুলের প্রতি মানুষের আকর্ষন সহজাত। তা আরো বাড়াতে চান তারা। এছাড়া ফুল চাষ ও এর পরিচর্যার কৌশল সম্পর্কে মানুষকে জানাতে চান। এই মেলা ফুল বিক্রি ও প্রচারের সুযোগ নিচ্ছেন ব্যবসায়িরা।

তিনি আরো বলেন, এখন এ মেলা রাজশাহীবাসীর প্রাণের মেলায় রুপ নিয়েছে। আগে থেকে এ আয়োজনের পক্ষোয় থাকে মানুষ। এটা শুধু পুষ্পমেলাই নয়, পুষ্পপ্রেমীদের মিলন মেলাও। মেলায় শিশুদের নিয়ে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতাও থাকছে বলে জানান তিনি।

Rajshahi Flower Fair Photo-5

মেলায় বান্ধবিদের সঙ্গে ঘুরতে এসেছিলেন, রাজশাহী কলেজের মাস্টার্স শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ফারিয়া রহমান। তিনি এ  আয়োজনে আপ্লুত। জানান, এবারই প্রথম মেলায় এলেন তিনি। এমন আয়োজনে সত্যিই অভিভুত তিনি। ভাবতেই পারেননি এক সঙ্গে এতো ফুল দেখবেন।

পরিবার নিয়ে মেলায় ঘুরতে এসেছিলেন নগরীর উপশহরের বাসিন্দা ইব্রাহিম খলিল। তিনি বলেন, প্রতিবছরই তিনি বাচ্চাদের নিয়ে পুষ্পমেলায় আসেন, এবারো এসেছেন। এক সঙ্গে এতোফুল অন্য কোথাও নেই। বাচ্চারা এতে এসে বেশ খুশি। তিনি চান, সবাই এ থেকে হয়ে উঠুন আরো বেশি বিশুদ্ধ আর প্রবিত্র।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

ফসল ঘরে না ওঠা পর্যন্ত বন্যার্তদের সহায়তা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

সাহেব-বাজার ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বন্যায় যাদের ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তা মেরামত করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *