Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • চার মাসেও শনাক্ত হয়নি লিপুর ঘাতকরা– বিস্তারিত....
  • মশার প্রকোপে অতিষ্ঠ রাবি শিক্ষার্থীরা– বিস্তারিত....
  • শিশু মেঘলা ও মালিহার হত্যাকান্ডের বিচারের দাবীতে মানবন্ধন– বিস্তারিত....
  • উপজেলা চেয়ারম্যানদের মূল্যায়নের অঙ্গীকার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের– বিস্তারিত....
  • নাটোরে হয়রানীমূলক মামলা থেকে কলেজ ছাত্র জামিনে মুক্ত– বিস্তারিত....

বাংলাদেশের সময় ধরে রিয়াদ-জেদ্দায় এসএসসি পরীক্ষা

ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বাংলাদেশে এসএসসি পরীক্ষা শুরুর সময় সকাল ১০টা। সে সময় মেনেই সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ ও জেদ্দা শহরে ২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় অনুষ্ঠিত হয় ২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষা।  ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে বাংলা ১ম পত্রের পরীক্ষায় অংশ নেয় এ দুটি শহরের বাংলাভাষী বেশ কিছু প্রবাসী ছাত্র-ছাত্রী। স্থানীয় বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র জানিয়েছে, সৌদি আরবের ৮টি কেন্দ্রে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে মোট ৪৪৬ জন শিক্ষার্থী।  এর মধ্যে ২৬১ জন ছাত্রী এবং ১৮৫ জন ছাত্র।

এর মধ্যে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে জেদ্দায় বাংলাদেশ স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় মোট ১৩৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এদের মধ্যে ৫২ জন ছাত্র এবং ৮৫ জন ছাত্রী। তবে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আজকের পরীক্ষায় দুজন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।

স্কুল কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছেন, এবার তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত। বাংলাদেশের সময় ধরে সৌদি সময় সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ব্যবহারিক পরীক্ষা বিকাল ৪টা থেকে শুরু হবে।

জেদ্দায় বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হামদুর রহমান এবং পর্ষদ চেয়ারম্যান মার্শেল কবির পান্নু জানান, ‘শিক্ষা বোর্ডের সব নিয়ম মেনে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে, শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতিও ভালো। এর আগে তুলনামূলক দুর্বল ছাত্রদের প্রতি বিশেষ যত্নসহ তাদের ওপর বার বার মডেল পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল।’

34ed192b7b10542ca91d058c41d3a67c-5893aa60d5f62

দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে পরীক্ষার প্রথম দিনে কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেদ্দা কনস্যুলেটের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল ড. নজরুল ইসলাম ও কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সালাহউদ্দিন। সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হামদুর রহমান। হল সুপারের দায়িত্বে থাকছেন স্কুলশিক্ষক আব্দুল জলিল ও  সহকারী হল সুপার মোহাম্মদ শাহ আলম। এবার ১০ মিনিটের বিরতি দিয়ে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) এবং পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা হবে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এদিকে রিয়াদে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে মোট ১১৮ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৫৩ এবং ছাত্রী ৬৫ জন। এর মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ৮৪ জন, ব্যাবসায় শিক্ষা শাখায় ৩৩ জন এবং মানবিক বিভাগে ১ জন পরীক্ষা দিচ্ছে। এতে পরিদর্শক ছিলেন দূতাবাসের সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা মো. আব্দুল ওয়াহাব। এ সময় বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মো. বদরুল আলমসহ সঙ্গে ছিলেন হাউজ সুপার দেলোয়ার হোসেন, সহকারী হল সুপার সাইদুর রহমান ও আহমদ করিম।

অধ্যক্ষ মো. বদরুল আলম জানান, ‘ শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার প্রস্তুতি খুবই ভালো। এতে দূতাবাস, স্কুল-পর্ষদ এবং অভিভাবকদের সার্বিক সহযোগিতা রয়েছে। তিনি আরও বললেন, শিক্ষার্থীরা সারা বছর পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে, বিশেষত নির্বাচনি পরীক্ষার পর তাদের মনোযোগ ছিল ভালো ফলের দিকে। তাই তারা ভালো করবে বলেই আশা করছি।’