Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাজশাহী হবে ভিন্নধর্মী মহানগরী: বাদশা– বিস্তারিত....
  • বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা– বিস্তারিত....
  • পাকিস্তানের সীমান্ত রক্ষা বাহিনীর গুলিতে দুই ভারতীয় সেনা নিহত– বিস্তারিত....
  • ফেইসবুক প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড পদ্ধতি বন্ধ– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে সড়ক দুঘর্টনায় গবেষক মনসুর নিহত– বিস্তারিত....

এসএসসিতে বসেছে ১৮ লাখ শিক্ষার্থী

ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক :  তিন হাজারের বেশি কেন্দ্রে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায়  সারা দেশে একযোগে শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের প্রথম দিনের পরীক্ষা। যাতে অংশ নিচ্ছে ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী। প্রথম দিন এসএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র, সহজ বাংলা প্রথম পত্র এবং বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রথম পত্রের পরীক্ষা চলছে।

মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ এবং কারিগরি বোর্ডের অধীনে এসএসসি ভোকেশনালে বাংলা-২ (১৯২১) আর দাখিল ভোকেশনালে নতুন সিলেবাসে বাংলা-২ (১৭২১) সৃজনশীল ও পুরাতন সিলেবাসে বাংলা-২ (১৭২১) সৃজনশীল বিষয়ের পরীক্ষা দিচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে সরকারি ল্যাবরেটরি বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে পরিদর্শনে যান। এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় গত বছর ১৬ লাখ ৫১ হাজার ৫২৩ জন অংশ নিয়েছিল। এই হিসেবে মাধ্যমিকে এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৯০ জন।

02.1

এবার তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত। ৪ থেকে ১১ মার্চ হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। ২৮ হাজার ৩৪৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ৩ হাজার ২৩৬টি কেন্দ্রে এসএসসি ও সমামানের পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

এবার আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জন, মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৫০১ জন এবং কারিগরি বোর্ডের অধীনে এসএসসি ভোকেশনালে ১ লাখ ৪ হাজার ২১২ জন পরীক্ষার জন‌্য নিবন্ধন করেছে। পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ৯ লাখ ১০ হাজার ৫০১ জন ছাত্র; ৮ লাখ ৭৬ হাজার ১১২ জন ছাত্রী।

বিদেশের আটটি কেন্দ্রে বসে এসএসসি দিচ্ছে ৪৪৬ জন শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে ২৬১ জন ছাত্রী, ১৮৫ জন ছাত্র। এবারও বাংলা দ্বিতীয় পত্র এবং ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র ছাড়া অন্য সব বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা হবে। এসএসসিতে এবার থেকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ে পরীক্ষায় বসবে শিক্ষার্থীরা।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসজনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীরা স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে। এ ধরনের প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেওয়া হবে। অটিস্টিক ও ডাউন সিনড্রোম প্রতিবন্ধীরা অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় পাবে এবং শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহায়তায় পরীক্ষা দিতে পারবে।