Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাসিকের অস্বাভাবিক হোল্ডিং ট্যাক্স বৃদ্ধি তদন্তের নির্দেশ মন্ত্রণালয়ের– বিস্তারিত....
  • দুর্গাপুরে পুকুর খননের অভিযোগে চারজন আটক– বিস্তারিত....
  • জয়পুর মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান– বিস্তারিত....
  • ছাত্রলীগ নেতাকে হাতুড়ি দিয়ে পেটালো আ’লীগের নেতারা– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ– বিস্তারিত....

মেয়ের জামাতা ট্রাম্পের শীর্ষ উপদেষ্টা

জানুয়ারি ১০, ২০১৭

সাহেব-বাজার ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের মেয়ের জামাতা জ্যারেড কুশনারকে তাঁর অন্যতম শীর্ষ উপদেষ্টা বানিয়েছেন। বিবিসি জানিয়েছে, হোয়াইট হাউসের নতুন এই চাকরিতে কুশনারকে একইসঙ্গে অভ্যন্তরীণ ও পররাষ্ট্র নীতি নির্ধারণে কাজ করতে হবে।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণার সময় ট্রাম্পের কন্যা ইভানকা ট্রাম্পের স্বামী কুশনার ট্রাম্প শিবিরের নীতি নির্ধারণে অন্যতম প্রধান ভূমিকা পালন করেন। ৩৫ বছর বয়সী এই ব্যক্তি একজন আবাসন ব্যবসায়ী।

যদিও এবিষয়ে ইভানকা জানিয়েছিলেন, হোয়াইট হাউজে কোন পদ নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী নন তিনি। ওয়াশিংটনে হোয়াইট হাউজের নিকটে ফ্লাট ক্রয় প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছিলেন, বাবার কাছাকাছি থেকে নিজের আগ্রহের বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করতে চান। এ সময় হোয়াইট হাউজে স্বামীর কাজের বিষয়ে কোন কথা বলেননি তিনি। কিন্তু এনবিসি’র পক্ষ থেকে জানানো হয়, নির্বাচনী প্রচারণায় মেয়ে জামাই কুশনার ছিলেন ট্রাম্পের অন্যতম উপদেষ্টা। তাই হোয়াইট হাউজেও ভাল কোন পদ পেতে যাচ্ছেন জ্যারেড কুশনার।

বিবিসি জানায়, কুশনারের পাওয়া নতুন দায়িত্ব অনুসারে দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ের পাশাপাশি বৈদেশিক নীতি নিয়েও কাজ করবেন তিনি। ৩৫ বছর বয়সী কুশনার মূলত একজন প্রোপার্টি ডেভেলপার ব্যবসায়ী।

বিবিসি জানায়, তাঁর মূল আগ্রহ সব সময় ব্যবসাকে কেন্দ্র করেই ছিল। আর সে কারণেই ডেমোক্রেটরা কুশনারের নিয়োগের বিষয়টি পুনঃনিরীক্ষার জন্য বলে। এ ক্ষেত্রে স্বজনপ্রীতি বিষয়ক আইন ও (আগ্রহের) সম্ভাব্য দ্বন্দ্বকে সামনে রেখে এই পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা হয়।

হাউজ জুডিশিয়ারি কিমিটির সদস্য এই বিষয়টি দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য বিচারবিভাগ ও সরকারের নীতি বিষয়ক অফিসে প্রেরণ করেছে। এর আগে ট্রাম্প তার মেয়ে জামাইয়ের প্রশংসা করে জানান, সে অসাধারণ এক সম্পদ এবং নিজ সরকারের কাঠামোতে তাকে (কুশনারকে) গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্বশীল দায়িত্ব দিতে পেরে গর্বিত।