নভেম্বর ২০, ২০১৭ ৮:১৯ পূর্বাহ্ণ

Home / slide / জীবনের সবচেয়ে বড় সম্মান ফার্স্ট লেডি হওয়া : মিশেল

জীবনের সবচেয়ে বড় সম্মান ফার্স্ট লেডি হওয়া : মিশেল

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আবেগে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছিলেন মিশেল ওবামা, ধরে রাখতে পারেননি চোখের জল পর্যন্ত। আর কয়েকটা দিন পরেই তো তাকে ছেড়ে দিতে হবে হোয়াইট হাউস, থাকবে না ফার্স্ট লেডি খেতাবটুকুও।

গত টানা দুই মেয়াদে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পরিচালনা করা বারাক ওবামার সঙ্গী মিশেল কথা বললেন নানা পেছন অভিজ্ঞতা নিয়ে। উঠে এলো ভবিষ্যতে কী করবেন সে প্রসঙ্গের বিষয়গুলোও।

স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকেলে শেষ আনুষ্ঠানিক ভাষণে সাংবাদিকদের সামনে আসেন মিশেল। কিছু সময় রাখেন বক্তব্য। যাতে উঠে আসে, যুক্তরাষ্ট্রকে আরও এগিয়ে নিতে করণীয়সহ নাগরিকের দায়িত্বের কথা। অভিবাসীদের এক হওয়ারও পরামর্শ দেন তিনি।

বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বৈচিত্র্যের দেশ। যা একটি গর্ব। সেই বৈচিত্র্য আমাদের ধর্ম-বর্ণ-জাতি ও বিশ্বাসের বৈচিত্র্য। এটি কখনও আমাদের জন্য হুমকি নয়। এর মধ্য দিয়েই এতো উন্নত হয়েছে দেশ, আগামীতেও হবে।

মিশেল তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেন, তরুণরাই আগামীর পৃথিবীর মূল প্রাণ। তাদেরই নেতৃত্ব দিতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের তরুণদের জন্য বলবো কোনোভাবেই নিজেকে কম গুরুত্বপূর্ণ মনে করার কোনো কারণ নেই, কাজ করে যেতে হবে- এতে অবদান আসবেই। স্বপ্নপূরণ হবেই।

ফার্স্ট লেডির পদ থেকে সরে গেলে কী করবেন জানিয়ে তিনি বলেন, ফার্স্ট লেডি হওয়াটা ছিল আমার জীবনের সব থেকে বড় সম্মানের। হোয়াইট হাউস ছাড়ার পরও আমি নিজে ব্যক্তিগতভাবে সামাজিক কার্যক্রমগুলো চালিয়ে নেবো। মানুষের জন্য স্বেচ্ছা কাজ করবো। চলতি মাসের ২০ তারিখই শেষ দিন বারাক ও মিশেলের। দুই কন্যাসহ হোয়াইট হাউস ছাড়তে হচ্ছে তাদের। সেখানে উঠবেন নয়া প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

‘হাইপারসনিক’ পরমাণু হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন!

সাহেব-বাজার ডেস্ক : যুদ্ধ ক্ষেত্রে নিজেদের সামরিক সক্ষমতার জানান দিতে নিত্য নতুন সমরাস্ত্র তৈরি করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *