Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • প্রশাসনিক দায়িত্ব হারাচ্ছেন বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান– বিস্তারিত....
  • দায়িত্ব অবহেলায় বরিশাল ও বরগুনার ডিসি প্রত্যাহার– বিস্তারিত....
  • নাটোরে অস্ত্রসহ দুই সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ– বিস্তারিত....
  • তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনার ক্ষমতা সরকারের নেই : নজরুল ইসলাম খান– বিস্তারিত....
  • উন্নয়ন প্রকল্পের প্রথম কিস্তির চেক বিতরণ করল জেলা পরিষদ– বিস্তারিত....

আশরাফ জুয়েলের কবিতা

জানুয়ারি ৬, ২০১৭

শূন্য মাচান

শূন্য মাচানে হামার দোলা দ্যায় নাউ;
কে তুমি অ্যাগন্যা ভুল্যা অন্য ঘরে যাও?
অ্যাগন্যা কইরা ভাগ– ঝুল্যা আছে দড়ি;
খোলস খুইল্যা নাচো পুরানা কিশোরী।

বিবাগী মনের পাখি, উড়ে শূন্যে উড়ে;
প্রেমিক হারিয়্যা যায়, প্রেমিক বেসুরে।
তুমি ছিল্যা, তুমি নাই, জ্যাগ্যাছে যে চর,
দেহ কান্দে, প্রাণ কান্দে, কান্দে মৃত ঘর।

বুকের আন্ধারে জ্বলে নিভু নিভু কুপি;
হামিও কান্দিরে সখী, কান্দি চুপিচুপি।
বুক ফাটে, চোখ কান্দে, কত দুখ সহে–
তুমি ছাড়া সখী গো হার আঁত্তা বিরহে।

কুণ্ঠে হামি যাবো কহো? প্রাণের সখীরে?
তুমি ঘুইরা আস সখী আসো এই নীড়ে।

জন্ম-পুরাণ

মহানন্দা নদীতে ভাসতে থাকা নোকা থ্যাক্যা পৃথিবী দ্যাখা
চোখ হঠাৎ সরু দৃষ্টির খপ্পরে পড়্যাছে–

অথচ আসার সময় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন লিয়া আ্যস্যাছিনু,
আ্যস্যাছিনু দুরন্ত কৈশোর আর তিশি ক্ষেত সঁতে লিয়্যা!
পোষা গৃহপালিতের দড়ি হাতে কর্যা, আ্যস্যাছিনু ঈদ -পূজা রঙের বাটি সঁতে লিয়্যা।
দামুশের বিল থ্যাক্যা লিয়া আ্যস্যাছিনু, চান্দা -পুঁটি। সুজনি কাঁথার অক্ষরে ভর্যা লিয়্যা
আ্যস্যাছিনু, মা খালার ঘে আঙুলের ছোঁয়া। আ্যস্যাছিনু ক্ষীরসা আমের স্বাদ হয়্যা। রঙিন ভরসা কাঁধে কর্যা লিয়া
আ্যস্যাছিনু, আ্যস্যাছিনু কিশোরী প্রেমিকার ওড়না ভরা ভালোবাসা সঁতে লিয়্যা! হালের মুঠা ধরা হাত লিয়া আ্যস্যাছিনু। এ শহরে।

এ শহর! এখানে কেউ কাউকে সঠিক ভাড়া দেয় না। কেউ সঠিক ভাড়া নেয় না।
মানুষের ভিড়ে এখানে সবাই মুখ লুকিয়ে নিচ্ছে। পাখি বলতে কাক। কথা বলতে অস্থিরতা।
এ শহর নিজেই নিজেকে ছিঁড়ছে। এ শহর নিজেই নিজেকে কামড়াচ্ছে। এ শহর নিজেই নিজেকে করছে খুন।
এ শহর নিজের শ্বাসে চাপা পড়ে পিষ্ট হচ্ছে প্রতিক্ষণ।

অথচ শরীরে ম্যাখ্যা আ্যস্যাছিনু বরেন্দ্রর সাঁতাল বিশ্বাস। খাঁজকাটা ভূমির স্মৃতিকথা হয়্যা। মহানন্দার স্রোত ও শোক হয়্যা। সোনা মসজিদের পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাস্কর্য হয়্যা। আ্যস্যাছিনু বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরের সমাধিশপথ হয়্যা। আলকাপ গানের সুর হয়্যা, গম্ভীরা গানের নানা-লাতি হয়্যা। আ্যস্যাছিনু চান্দ সদাগরের লা-এ চড়হ্যা।

এ শহর। কেউ এখানে কাউকে চেনার দায় নেয় না। কেউ এখানে কাউকে চেনার দায় দ্যায় না।
মুখবন্ধ শহর। পরিচয় অবান্ধব শহর।
এক টুকরো আকাশ খুঁজে পাচ্ছে না এ শহর;
উদার আকাশ। আমনির মাঠের মতো উদার আকাশ। আম বাগানের মত বিশ্বাসী আকাশ।

একদিন এ শহর থ্যাক্যা বাহির হয়্যা হাঁটতে থাকব হামার গ্রামের দিকে- হামার নিষ্কলুষ জন্ম-পুরাণ
দিয়াড়ের দিকে, পলি ঘ্যারা মহারাজপুরের দিকে, হাঁটতে থাকব চাঁপাইয়ের দিকে–
‘চলো জ্বি হামরা সভ্যাই মিল্যা বাড়ির দিকে যাই,
জাড়ের ভোরে চল সভ্যাই কালাই এর রুটি খাই’