জানুয়ারি ২০, ২০১৮ ১:০১ অপরাহ্ণ

Home / slide / দাঁড়িপাল্লা প্রতীক বাদ দিতে আইন মন্ত্রণালয়ের সম্মতি

দাঁড়িপাল্লা প্রতীক বাদ দিতে আইন মন্ত্রণালয়ের সম্মতি

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, নির্বাচনের প্রতীক তালিকা থেকে ‘দাঁড়িপাল্লা’ বাদ দিয়ে সংসদ নির্বাচন বিধিমালা সংশোধনের প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়।

বুধবার (৪ জানুয়ারি)বিচার প্রশাসন ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে বিচারকদের এক প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন।

আনিসুল হক বলেন, সুপ্রিম কোর্টের একটি প্রশাসনিক আদেশ বিবেচনা করে দাঁড়িপাল্লাকে নির্বাচনী প্রতীক হিসেবে ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন। এরপর তা মন্ত্রণালয়ে ভেটিংয়ের জন্য পাঠানো হয়।

নির্বাচনী প্রতীক বানানোর ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের। নির্বাচন কমিশন যদি কোনো প্রতীককে বাদ দিতে চায় বা যুক্ত করতে চায়, সেটা আইনত তারা পারে। আইনত যেহেতু তারা পারে, সে কারণে আমরা বলে দিয়েছি, এটা ঠিক।

ইসির সহকারী সচিব রৌশন আরা বেগম জানান, সংসদ নির্বাচনে দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের জন্য ৬৫টি প্রতীক রয়েছে। বিধি সংশোধনের পর দাঁড়িপাল্লা বাদ দিয়ে সংখ্যা দাঁড়াবে ৬৪টি।

কোনো রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর প্রতীক হিসেবে ‘দাঁড়িপাল্লা’ বরাদ্দ না দিতে এবং দেওয়া হয়ে থাকলে তা বাতিলের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে এ পদক্ষেপ নেয় ইসি।

এর আগে গত ১৪ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) ওই সিদ্ধান্তের বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রারের দপ্তর থেকে ইসি সচিবালয়ে পাঠানো হলে কমিশন বিধিমালা সংশোধনের উদ্যোগ নেয়।

আইনমন্ত্রী বলেন, দাঁড়িপাল্লা প্রতীক যে রাজনৈতিক দল ব্যবহার করত, সেটার ব্যাপারে জনগণের একটা বক্তব্য আছে। যে বক্তব্য আমরা বুঝতে পারি, সেটা হল, এই রাজনৈতিক দলের এই প্রতীক ব্যবহার করা উচিত না বা ব্যবহারের ক্ষমতা থাকা উচিত না।

আমি কিছুটা সেই দিক থেকে দেখেও এই প্রতীকের ব্যাপারে যখন নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আমরা বলেছি সেটা ঠিক আছে।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

শনিবার সাগরদাঁড়ি শুরু হচ্ছে মধুমেলা

সাহেব-বাজার ডেস্ক : মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আগামীকাল শনিবার থেকে কেশবপুর উপজেলার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *