ডিসেম্বর ১৫, ২০১৭ ১২:১৭ অপরাহ্ণ

Home / slide / ‘বাংলাদেশকে নিরক্ষরমুক্ত করতে চাই’

‘বাংলাদেশকে নিরক্ষরমুক্ত করতে চাই’

সাহেব-বাজার ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আজ আনন্দের দিন। আগামীকাল সারাদেশে বই উৎসব হবে। আমরা বাংলাদেশকে নিরক্ষরমুক্ত করতে চাই। তিনি বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য একটাই, দেশকে দারিদ্র মুক্ত করা। এজন্য সবার আগে চাই শিক্ষা।’

আগামী ১ জানুয়ারি সারাদেশে ‘জাতীয় পাঠ্যপুস্তক উৎসব’ উদযাপনের অংশ হিসেবে শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে বিনামূল্যে ২০১৭ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীনের পর সংবিধানে প্রাথমিক শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক ও অবৈতিক করায় জোর দিয়েছিলেন। রাষ্ট্র হিসেবে তার জন্যই আমরা দাঁড়াতে পেরেছি।’

তিনি বলেন, ‘২০১০ সাল থেকে ২০১৭ সালের শুরু পর্যন্ত ২’শ কোটি ২৫ লাখ ৪৩ হাজার পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করেছে সরকার।এতো পাঠ্যপুস্তক প্রকাশ ও বিতরণ বিশ্বের আর কোনো সরকার করেছে কিনা জানি না। নতুন বই বাচ্চাদের মনে সুন্দর অনুভুতি জাগায়, বই পড়ার আগ্রহ জাগায়।’

শিক্ষা-দীক্ষায় বাংলাদেশ আরো উন্নত হবে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলেয়ে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নত হচ্ছে। বর্তমান সরকার সমস্ত পাঠ্যপুস্তক সার্বজনীনভাবে তৈরি করছে। ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য তাদের মাতৃভাষায় বই প্রকাশ করা হয়েছে। আমরা চাই তাদের মাতৃভাষা যেনো বাংলা ভাষার মতই সমুন্নত থাকে। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের মধ্যে সুপ্ত প্রতিভা থাকে। সেই প্রিভা বিকাশে আমরা তাদের উপযোগী বই তুলে দিচ্ছি।’

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ১ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টায় রাজধানীর আজিমপুর সরকারি বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি হিসেবে ‘জাতীয় পাঠ্যপুস্তক উৎসব-২০১৭’ উদ্বোধন করবেন।

সরকার ২০১৭ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিনামূল্যে ৩৬ কোটি ২১ লাখ ৮২ হাজার ২৪৫টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করবে। সারাদেশে ৪ কোটি ২৬ লাখ ৩৫ হাজার ৯২৯ জন ইবতেদায়ী, দাখিল, দাখিল কারিগরি, এসএসসি ভোকেশনাল, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর মধ্যে বিনামূল্যে এসব বই বিতরণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে রাষ্ট্রপতির শ্রদ্ধা

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আজ ১৪ ডিসেম্বর, মহান শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। এ উপলক্ষে রাজধানীর মিরপুর শহীদ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *