সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৭ ৭:২৪ অপরাহ্ণ

Home / slide / সদস্য ও নারী সদস্যদের সঙ্গে মোহাম্মদ আলীর মতবিনিময়

সদস্য ও নারী সদস্যদের সঙ্গে মোহাম্মদ আলীর মতবিনিময়

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত সদস্য ও নারী সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর উপশহরে মোহাম্মদ আলী সরকারের বাসায় এই মতবিনিময়সভা হয়। এ সময় পরিষদের নব-নির্বাচিত সদস্যরা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকারের নেতৃত্বে আগামি পাঁচ বছর ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার অঙ্গীকার করেন।

মঙ্গলবার রাজশাহী জেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বড় ব্যবধানে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মোহাম্মদ আলী সরকার। এরপর থেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানাতে তার বাসায় হাজারো মানুষের ঢল নামে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আসতে থাকেন জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত সদস্য ও নারী সদস্যরাও।

দুপুর ১২টার মধ্যেই মোহাম্মদ আলী সরকারের বাসায় আসেন পরিষদের সকল সদস্য ও নারী সদস্যরা। এরপর তাদের মধ্যে প্রায় ঘন্টাব্যাপি মতবিনিময়সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় সাধারণ সদস্য নূর মোহাম্মদ তুফান বলেন, গত (বুধবার) একসঙ্গে একটি পরিবারের জন্ম হয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) তাদের প্রথম সাক্ষাত। এই পরিবারের সদস্যরা আগামি পাঁচ বছর পরিবার প্রধান (চেয়ারম্যান) মোহাম্মদ আলী সরকারের নেতৃত্বে পথ চলতে চায়।

সদস্য আবদুল মান্নান ফিরোজ বলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে আমরা একজন ভালো মানুষকে পেয়েছি। আমরা সবাই তাকে অনুসরণ করতে চাই। সদস্য রবিউল আলম বলেন, চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকারের নেতৃত্বে আগামি পাঁচ বছর জেলা পরিষদে স্থানীয় সরকারের জনপ্রতিনিধিদের সেবা করে যাব। তাহলেই এর পরের নির্বাচনেও আমরা তাদের দুয়ারে যাওয়ার সাহস পাব।

সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য কৃষ্ণা দেবী বলেন, মোহাম্মদ আলী সরকার আওয়ামী লীগের জন্য অনেক করেছেন। সাধারণ মানুষের কাছেও তার অবদান কম নয়। এসবের কারণেই তিনি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। পরিষদের সকল সদস্য ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চায়।

ওই বৈঠকে সাধারণ সদস্য আসাদুজ্জামান মাসুদ, নাজমুল হুদা রানা, গোলাম মোস্তফা, আজিবর রহমান, নারী সদস্য জয়জয়ন্তি সরকারসহ সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। মোহাম্মদ আলী সরকার তাদের বলেছেন, জেলা পরিষদের এই পরিষদের প্রধান লক্ষ্য থাকবে স্থানীয় সরকারের সকল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিদের জেলা পরিষদের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা। আর এ জন্য তিনি পরিষদের সবাইকে নিয়েই কাজ করতে চান।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা মোহাম্মদ আলী সরকার রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি ছিলেন। এছাড়াও তিনি ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই ও সার্ক চেম্বারের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এবার জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩২৭ ভোটের ব্যবধানে জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহবুব জামান ভুলুকে পরাচিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

রিজনের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘রিয়েলিটি’

সাহেব-বাজার ডেস্ক : শহরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির দিন দিন অবনতি হচ্ছে। প্রতিনিয়ত শহরের মধ্যে বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *