Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • মোহনপুরে দুই সহদোরের শয়নকক্ষে মিললো গোখরার ৫৬ বাচ্চা– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীর ২০০ শিক্ষার্থী পেল জেলা পরিষদের বৃত্তি– বিস্তারিত....
  • নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনো আপোস নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে তিনদিন ব্যাপি ফলদ ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধন– বিস্তারিত....
  • মানবপাচারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় থাই জেনারেলের কারাদণ্ড– বিস্তারিত....

৩৪২ রানের কঠিন চ্যালেঞ্জ দিল নিউজিল্যান্ড

ডিসেম্বর ২৬, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : শেষ তিন ওভারে টাইগারদের প্রবল প্রতিরোধ সত্বেও নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশকে পাহাড়সম ৩৪২ রানের কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে। ৭ উইকেটে ৩৪১ বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে বড় স্কোর।

আগেরটি ছিল সেই ২৬ বছর আগে দুই দলের প্রথম দেখা হওয়া ম্যাচে। সেবার ১৫৮ রানের জুটি গড়েছিলেন মার্টিন ক্রো আর জন রাইট। বাংলাদেশের বিপক্ষে সেটিও ছিল নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ জুটি।

আজও ঠিক ১৫৮ রানেরই একটা জুটি গড়ে দিল ইনিংসের ভিত্তি। পঞ্চম উইকেটে ওভারে নয়ের কাছাকাছি গড়ে এই রান যোগ করেছেন মুনরো-ল্যাথাম। মুনরো শেষ পর্যন্ত ৮৭ রান করে আউট হলেও নিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে সেঞ্চুরিটা ১৩৭ রানে নিয়ে গেছেন টম ল্যাথাম।

১৫৮ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলা নিউজিল্যান্ডকে পথ হারাতে দেননি এই দুজনই। ওই অবস্থায় আর এক-দুটি উইকেট ফেলতে পারলে নিউজিল্যান্ড চাপে পড়ে যেত। কিন্তু বোলাররা সেভাবে রাশ টেনে ধরতে না পারায় উল্টো বাংলাদেশই চাপে পড়ে যায়। শেষ চার ওভারে অমন প্রতিরোধ না গড়লে স্কোরটা একসময় ৩৬০-৩৭০-এর পূর্বাভাসই কিন্তু দিচ্ছিল।

৪৭তম ওভারের আগের ৫ ওভারে যে নিউজিল্যান্ড তুলে ফেলেছিল ৬৭ রান। সেই নিউজিল্যান্ড শেষ চার ওভারে তুলে নেয় ২৯ রান। যার ফলে টার্গেট গিয়ে দাঁড়ায় ৩৪২ রানে। এই বিশাল রান তাড়া করাটা নি:সন্দেহে বাংলাদেশের জন্য কঠিন কাজ। নিউজিল্যান্ডও ৩৩০ পেরোনো স্কোরেে এর আগে হেরেছে মাত্র একবারই।

তবে টাইগারদের মনে রাখা উচিত উইকেটে কোনো জুজু নেই। কন্ডিশন প্রতিকূল নয় মোটেও। মাঠও ছোট। কিন্তু স্কোরটাও যে অনেক বড়, তাও অস্বীকার করার উপায় নেই। বাংলাদেশের তিন শর বেশি লক্ষ্য ছোঁয়া জয় আছে তিনটি। আশার কথা, এর একটি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই। বাংলাদেশ নিউজিল্যান্ডকে দ্বিতীয় বাংলাওয়াশ নিশ্চিত করেছিল ৩০৮ রানের লক্ষ্য মিলিয়ে দিয়েই।