Ad Space

তাৎক্ষণিক

নাটোরে অজ্ঞাত যুবতীর মৃতদেহের পরিচয় মিলেছে স্বামী আটক

ডিসেম্বর ২৬, ২০১৬

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের সিংড়ায় অজ্ঞাত যুবতীর মৃতদেহের পরিচয় নিশ্চিত করেছে পুলিশ। নিহত যুবতীর নাম রেজেনা পারভীন রুপালী। সে লালমনিরহাট জেলার মোস্তফি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে। এদিকে সোমবার নিহত ওই যুবতীর প্রেমিক স্বামী শাহমিম হোসেনকে ফুলবাড়ী এলাকা থেকে আটক করেছে সিংড়া থানা পুলিশ।

সিংড়া থানার উপ-পরিদর্শক দেবব্রত দাস জানান, নিহত যুবতী রেজেনা পারভীন রুপালী বগুড়া মেরিস্টোপ ক্লিনিকে নার্সের চাকুরীরত ছিলেন। চাকুরী করার সুবাদে ফুলবাড়ী এলাকার যুবক শাহমিমের সাথে পরিচয় ও আলাপচারিতা শুরু হয়। সেই পরিচয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে তাদের বিয়েও হয়। বিয়ের কিছুদিন পর বিবাহ বিচ্ছেদ করে তার স্বামী। এরপর আবার তাদের নিজেদের মধ্যে দ্বিতীয় বার বিয়ে করার ঘটনা ঘটে। দ্বিতীয় বিয়ের পর থেকেই চলে তাদের সংসারে মনো-মালিন্য ও বিরোধ।

এক পর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার বগুড়া থেকে ওই যুবতী নিখোঁজ হয়। কয়েকদিন ধরে তার কোন সন্ধান পায় না পরিবারের সদস্যরা। এতে তারা বিভিন্ন স্বজনদের কাছে তার খোঁজ করেন এবং সকল স্বজনের কাছেই নিরাশ হন। এদিকে গত রোববার সকালে নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের বাঁশের ব্রীজ এলাকা থেকে অজ্ঞাত যুবতীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

এঘটনাটি মিডিয়ার মাধ্যমে নিখোঁজ রুপালীর পরিবারের লোকজন জানতে পেরে সিংড়া থানায় যোগাযোগ করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে সকল তথ্য নেওয়ার পর পুলিশ ফুলবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে শাহমিম হোসেনকে আটক করে।

সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন মন্ডল জানান, হত্যাকান্ডের দায়ে নিহত যুবতীর প্রেমিক স্বামীকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।