Ad Space

তাৎক্ষণিক

মোস্তাফিজ ভীতিতে নিউজিল্যান্ড

ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেকে বিশ্বমানের বোলারের কাতারে নিয়ে যাওয়া মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েই যত ভয় নিউজিল্যান্ডের! আজ বাদে কালই যে পূর্ণাঙ্গ সিরিজে বাংলাদেশের মুখোমুখি হচ্ছে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। এক মোস্তাফিজই যে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন তা বেশ ভালো করেই জানে স্বাগতিক শিবির।

ক’দিন আগেই বর্ষসেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের স্বীকৃতি পেয়ে নতুন উচ্চতায় পা রাখেন মোস্তাফিজ। বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে আইসিসির একক কোনো বার্ষিক পুরস্কার জেতার গৌরব অর্জন করেন।

উপমহাদেশের স্পিনবান্ধব উইকেটে সাধারণত সংগ্রাম করতে হয় পেস বোলারদের। এ ধারণায় ব্যতিক্রম বাংলাদেশের ২১ বছর বয়সী বাঁহাতি পেস সেনসেশন মোস্তাফিজ। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ভারতের টার্নিং উইকেটে তার সাফল্য চোখে পড়ার মতোই।

মাঝে ইনজুরি আর সার্জারির কারণে কয়েক মাস মাঠের বাইরে ছিলেন ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত মোস্তাফিজ। নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে এরই মধ্যে বোলিংয়ে ফিরেছেন। একমাত্র ‍প্রস্তুতি ম্যাচটিতে (২২ ডিসেম্বর) বৃষ্টি আইনে দল তিন উইকেটে হেরে গেলেও বল হাতে দুই উইকেট নিয়ে উজ্জ্বল ছিলেন সাতক্ষীরার ছেলে মোস্তাফিজ।

এ সিরিজে মোস্তাফিজ কতটা ‘ভয়ঙ্কর’ হয়ে উঠতে পারেন তা উইলিয়ামসনদের কাছে অজানা নয়। গত মার্চে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপের সামনে দুর্বোধ্য ছিলেন মোস্তাফিজ। সে ম্যাচটিতে একাই নিয়েছিলেন পাঁচটি উইকেট।

মোস্তাফিজকে ‘ওয়ার্ল্ডক্লাস’ বোলার হিসেবেই মূল্যায়ন করছেন নিউজিল্যান্ড কোচ মাইক হেসন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার পারফরম্যান্স খুবই ভালো ছিল। সে বিশ্বের সেরা বোলারদের একজন। তাই প্রতিপক্ষ হিসেবে আমরা তাকে যথার্থ সম্মান ও সমীহ করছি। বিশ্বের সব প্রফেশনাল টুর্নামেন্টই (টি-২০) তাকে পেতে চায়। দুর্দান্ত বোলিং বৈচিত্র্যে সে নিশ্চিতভাবেই আইপিএলে জায়গা করে নিয়েছে।’

‘মোস্তাফিজ অবশ্যই জানে কীভাবে নিউজিল্যান্ডের উইকেটে বোলিং করতে হবে।’-যোগ করেন হেসন। বলা বাহুল্য, খেলোয়াড়ী জীবনে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সাত টেস্টে ৩২টি উইকেট নিয়েছিলেন টাইগারদের বোলিং কোচ ক্যারিবীয় কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালস। ওয়ার্ল্ডক্লাস মোস্তাফিজও বল হাতে বিধ্বংসী রূপ ধারণ করবেন সে প্রত্যাশা ওয়ালসের সঙ্গে অগণিত টাইগার ক্রিকেটপ্রেমীদের।

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজের সূচি:

২৬ ডিসেম্বর           : প্রথম ওয়ানডে, ক্রাইস্টচার্চ
২৯ ডিসেম্বর           : দ্বিতীয় ওয়ানডে, নেলসন
৩১ ডিসেম্বর           : তৃতীয় ওয়ানডে, নেলসন
৩ জানুয়ারী            : প্রথম টি-২০, নেপিয়ার
৬ জানুয়ারী            : দ্বিতীয় টি-২০, মাউন্ট মাউনগানুই
৮ জানুয়ারী            : তৃতীয় টি-২০, মাউন্ট মাউনগানুই
১২-১৬ জানুয়ারী    : প্রথম টেস্ট, ওয়েলিংটন
২০-২৪ জানুয়ারী     : দ্বিতীয় টেস্ট, ক্রাইস্টচার্চ

বাংলাদেশ সময় অনুযায়ী সবগুলো ওয়ানডে ও টেস্ট ম্যাচ ভোর ৪টায় শুরু হবে। প্রথম টি-টোয়েন্টি দুপুর ১২টায়। পরের দুই ম্যাচ মাঠে গড়াবে সকাল ৮টায়।