Ad Space

তাৎক্ষণিক

বীরেন মুখার্জীর কবিতা

ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬

হাঁটছি আমরা

 

সকাল হেঁটে যাচ্ছে–
কাঁধে কুয়াশাজর্জর শীতবস্ত্র; হাঁটছি আমরা
নগরীর বাহুল্যবাগান পেরিয়ে রাত্রি অভিমুখী;

নিখিলবিশ্বে নেচে ওঠা সেলফি উৎসব আরও রঙিন
দিকে দিকে ছড়িয়ে দিচ্ছে শান্তিতামাশা,
সুরক্ষিত ভেতরমহল, রক্তআলোকে উজ্জ্বল!

আমরা হাঁটছি, পদশব্দে ভুলফুল; দেখি–
শাস্ত্রীয় উঠোন যেন পৃথিবীর সমস্ত আর্তচিৎকার
উপমিত হাসি আর মানবভস্মে গম্ভীর!

ভেতর-বাহির পোড়াগন্ধ, হাঁটছি আমরা–
হেঁটে চলেছে শীতবস্ত্র, গভীর রাত ও অগ্নি-তামাশা
আড়ালে আলোকের গোপনগর্ভ, গতিশীল বাস্তব

প্রকৃত একটি জীবনের আয়ুখণ্ড

 

কোথাও জীবন ছিল না–
হাড়ের ভেতর গোল হয়ে শুয়ে ছিল
–গন্তব্যের আতাফল;
মানুষ ছিটকে গিয়েছিল দূরের অন্ধকারে
জ্যোৎস্নার নাভিতে বসিয়ে গোপন দাঁত!

আহতপর্বে ছুটে যেতে দেখেছিল সবাই
ঘোড়ার দ্রষ্টব্য; শোরগোল উঠেছিল
–কোথায় মানুষ!

জীবন ও মানুষ এক অচেনা দ্বৈরথ
ব্যবহৃত পোশাকের মতো জন্ম দিয়ে চলে
অবাস্তব প্রাতিস্বিক–

চলো, পরমহংস–
ভাঁজ করা সরোদের টংকার থেকে তুলে নেবে
প্রকৃত একটি জীবনের– সফল আয়ুখণ্ড!

শিল্পী : মোস্তাফিজ কারিগর