Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনে সংঘর্ষ, উদ্বিগ্ন সাংসদ বাদশা– বিস্তারিত....
  • ভোটের ‘ধর্মীয় সেন্টিমেন্টে’ ভাস্কর্য সরানোর ‘পক্ষে’ আ’লীগ-বিএনপি– বিস্তারিত....
  • আমরা আজ হেরে গেলাম : ভাস্কর মৃণাল হক– বিস্তারিত....
  • নতুনদের জন্য ভিডিও এডিটিং কোর্স নিয়ে এলো বিআইটিএম– বিস্তারিত....
  • সৌদিতে রোজা শুরু শনিবার, বাংলাদেশে রবিবার– বিস্তারিত....

রোমানিয়ায় প্রধানমন্ত্রী পদে নারী

ডিসেম্বর ২৪, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : পূর্ব ইউরোপের দেশ রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশটির মুসলিম সংখ্যালঘু একজন নারীর নাম প্রস্তাব করা হলে, এ নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেশ আলোচনার জন্ম দেয়। কারণ, ইউরোপজুড়ে যখন মুসলিমবিরোধী মনোভাব দিন দিন বেড়েই চলছে। তখন এর বিপরীত দেশটি পথে হাঁটল। ফলে রোমানিয়াবাসী প্রথমবারের মতো একজন মুসলিম ও নারী প্রধানমন্ত্রী পেতে যাচ্ছেন।

রোমানিয়ার সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দল সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (পিএসডি) ৫২ বছর বয়সী সেভিল শাইদেহকে (Sevil Shhaideh) প্রধানমন্ত্রী করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে।

দলটি গত ১১ ডিসেম্বরের ( রবিবার) নির্বাচনে ৪৫ ভাগ ভোট পেয়ে ক্ষমতায় বসতে যাচ্ছে। দেশের প্রেসিডেন্ট এই প্রস্তাব অনুমোদন করলে তাতার বংশোদ্ভূত সেভিল হবেন রোমানিয়ার প্রথম নারী ও মুসলিম প্রধানমন্ত্রী।

সেভিল সোস্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (Social Democrat Party-PSD) সদস্য হলেও তিনি ১ ডিসেম্বরের নির্বাচনে অংশ নেননি। ২০১৫ সালে তিনি ছয় মাস আঞ্চলিক প্রশাসন ও গণপ্রশাসনবিষয়ক মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন।

পার্লামেন্ট নির্বাচনে জয়ের পর সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান লিভিউ ড্রাগনেয়ার প্রধানমন্ত্রী হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার বিরুদ্ধে নির্বাচনী অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। এ জন্য ড্রাগনেয়া সাজাও পেয়েছেন। প্রেসিডেন্ট ক্লাউস ইউহানিস জানিয়ে দিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী এমন ব্যক্তিকে হতে হবে; যার বিরুদ্ধে কোনো অপরাধের অভিযোগ নেই। এরপর সেভিলের নাম প্রস্তাব করা হয়।

প্রেসিডেন্ট ও পার্লামেন্টের অনুমোদন সাপেক্ষে সেভিল শাইদেহ রোমানিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন। এ সম্ভাবনাই বেশি মনে করছে দেশটির গণমাধ্যম।

গত ১১ ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচনে পিএসডি জোটবদ্ধভাবে দ্বিকক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্টের ৪৬৫ আসনের মধ্যে ২৫০টি আসন পেয়েছে। দলটির সঙ্গে অপর যে দলটি রয়েছে, তা হলো এএলডিই।

উল্লেখ্য, রোমানিয়ার মোট জনসংখ্যার মাত্র ২০ শতাংশ মুসলিম। আর দেশটি ২০০৪ সাল থেকেই ন্যাটোর সদস্য। রোমানিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের সপ্তম বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ। রোমানিয়ার রাজনীতি একটি আধা-প্রেসিডেন্টশাসিত প্রতিনিধিত্বমূলক বহুদলীয় গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কাঠামো অনুযায়ী পরিচালিত হয়। প্রেসিডেন্ট হলেন রাষ্ট্রটির প্রধান। তবে সরকার প্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী।